মানচিত্র থেকে মুছে যেতে চলেছে একটি আস্ত গ্রাম

187

বোলপুর: নানুরের মানচিত্র থেকে মুছে যেতে চলেছে সুন্দরপুর নামে একটি আস্ত গ্রাম। দু’দিনের অতি বৃষ্টি এবং ঝাড়খণ্ড থেকে জল ছাড়ার ফলে অজয় নদীর বাঁধ ভেঙে ধুয়ে মুছে নিয়ে গিয়েছে সুন্দরভাবে সাজানো ওই গ্রামকে। শনিবার সকাল থেকে অসহায় মানুষগুলো নিজের ভিটেমাটি খুঁজতেই ব্যস্ত হয়ে পড়ে। কিন্তু কেউ আর তাদের বাপ-ঠাকুরদার মাটি খুঁজে পায়নি।

দিনদুয়েক ধরে বৃষ্টির ফলে বীরভূমের অধিকাংশ নদীতে জল বাড়তে শুরু করে। বিশেষ করে অজয় নদী ফুলে ফেঁপে ওঠে। বৃহস্পতিবার গভীর রাতে নানুর থানার সুন্দরপুর গ্রামের কাছে বাঁধ ভেঙে গিয়ে গোটা গ্রাম প্লাবিত হয়। গ্রামবাসীরা বিপদের আগাম সতর্কবার্তা পেয়ে এক কাপড়েই বাড়ির মায়ার ত্যাগ করে বাঁধে আশ্রয় নেন। রাত বাড়তেই একের পর এক বাড়ি ভাঙতে শুরু করেছে। চোখের নিমেষে জলের তোড়ে ভেসে যায় বাড়ি, আসবাবপত্র, গবাদি পশু। শনিবার ভোরের আলো ফুটতেই জল নামতে শুরু করে। গৃহহীন মানুষগুলো তাদের পূর্বপুরুষের ভিটেমাটি খুঁজতে বেরিয়ে পড়ে। কিন্তু সর্বগ্রাসী অজয়ের জল সেই ভিটেমাটিতে কোথাও পুকুর আবার কোথাও বড় নিকাশিনালা তৈরি করে দিয়েছে। গ্রামের মাটি পর্যন্ত গিলে খেয়েছে বন্যার জল। তবে এখন তিনটি মাটির এবং চারটি পাকা বাড়ি গ্রামের স্মৃতি বহন করে চলেছে। সম্পূর্ণ জল নামলে এবং রোদ উঠলে সেগুলিও নিশ্চিহ্ন হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

- Advertisement -

ত্রাণ নিয়েও অভিযোগ রয়েছে গ্রামবাসীদের মধ্যে। দুর্গত মানুষরা পর্যাপ্ত ত্রাণ পাচ্ছে না বলে অভিযোগ। যদিও নানুরের বিডিও সৌভিক ঘোষাল বলেন, ‘আমরা সাধ্যমতো ত্রাণ পৌঁছে দিচ্ছি। এখন পর্যন্ত দুর্গত মানুষদের জন্য কী করা হবে, তা সিদ্ধান্ত নেওয়া যায়নি। তবে দু-একদিনের মধ্যে প্রশাসনিক বৈঠকে সিদ্ধান্ত নিয়ে দুর্গতদের কীভাবে মাথা গোঁজার ঠাই করে দেওয়া যায় তা দেখা হবে।’