তৃণমূল নেতার বিতর্কিত মন্তব্যের জের, রিপোর্ট তলব রিটার্নিং অফিসারের

48

বর্ধমান: বিতর্কিত মন্তব্যের জেরে বর্ধমান দক্ষিণের তৃণমূল প্রার্থী খোকন দাসের বিরুদ্ধে নির্বাচন কমিশনে অভিযোগ জানিয়েছিল বিজেপি। ওই অভিযোগের ভিত্তিতে বর্ধমান থানাকে তদন্ত করে রিপোর্ট জমা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন বর্ধমান উত্তরের এসডিও তথা রিটার্নিং অফিসার দীপ্তার্ক বসু। বুধবার বিকেলে তিনি বলেন, ‘আমাদের কাছে একটি অভিযোগ এসেছিল। সেই অভিযোগের ভিত্তিতে বর্ধমান থানার আইসিকে রিপোর্ট দিতে বলা হয়েছে।’ এর আগে নবাবহাটে ১০৮ শিবমন্দিরের সামনে শিবরাত্রির দিন হেলমেট বিলি করে বিতর্কে জড়িয়েছিলেন খোকনবাবু।

মঙ্গলবার কাঞ্চননগরে তৃণমূলের মহিলা কর্মী-সমর্থকদের নিয়ে প্রকাশ্য বক্তব্য রাখতে গিয়ে তৃণমূলকে ভোট না দিলে বিজেপি-ভোটারদের চিহ্নিত করে রাখার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন বলে বর্ধমান দক্ষিণের তৃণমূল প্রার্থী খোকন দাসের বিরুদ্ধে অভিযোগ ওঠে। ওই সভা থেকে তৃণমূল প্রার্থীকে বলতে শোনা যায়, ‘যাঁরা এই এলাকায়, দু’চারজন ভাবছেন বিজেপি করে বিজেপিকে ক্ষমতায় নিয়ে আসব। ক্ষমতায় আনতে পারলে তো ভাল। আর না আনতে পারলে, কাঞ্চননগর ও রথতলায় আমরা যা কাজ করেছি, শুনে নিন, যাঁরা বিজেপিকে সমর্থন করবেন, তাঁদের পাশে আমরা দাঁড়াব না, একটা বিপদ-আপদ হলেও। আমরা সারা বছর মানুষের পাশে থাকি, কোনও দল দেখি না। কিন্তু মানুষের ভাবা দরকার, এবার কাঞ্চননগর-রথতলার ছেলে বর্ধমান দক্ষিণের তৃণমূলের প্রার্থী হয়েছে। এবার আর খোকন দাস ছাড়া কাউকে ভোট দেব না।’ তাঁর দাবি, তৃণমূল কিছু না করলে মানুষ বিরোধীতা করতে পারত। কিন্তু বর্ধমান শহরের মধ্যে কাঞ্চননগর-রথতলার মত উন্নয়ন আর কোথাও হয়নি। সেখানে তৃণমূল ছাড়া অন্য কারওর ভোট পাওয়া উচিত নয়। এরপরেই তিনি হুঁশিয়ারির সুরে বলেন, ‘এই ভোট যদি কেউ আমাকে না দেয়, সেই ভোট যদি বিজেপি পায়, এ বার ভোটে যাঁরা বিজেপির হয়ে কাজ করবে, আমরা তাঁদের চিহ্নিত করে রাখতে চাই। দু’তারিখের পর আমরা দেখব, কিভাবে কি করা যায় বিজেপির বিরুদ্ধে।’

- Advertisement -

এদিন সকালে বিজেপির বর্ধমান দক্ষিণ বিধানসভার আহ্বায়ক কল্লোল নন্দন নির্বাচন কমিশনের ‘সি-ভিজিল’ অ্যাপ্লিকেশনের মাধ্যমে অভিযোগ করেন। কল্লোলবাবুর অভিযোগ, ‘বিজেপির ভোটারদের বুথ পর্যন্ত যাওয়ার পথ আটকাতে চাইছে তৃণমূল। আর সে জন্যেই তৃণমূল প্রার্থী হুমকি দিচ্ছেন। আমরা নির্বাচন কমিশনে অভিযোগ জানিয়েছি।’

খোকনবাবু বলেন, ‘কারা ভোট দেবেন না, সেটা রাজনৈতিক ভাবে চিহ্নিত করার কথা বলেছি। তাঁরা কেন আমাদের দিকে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছেন, সেটা আমি নিজে জানব বলেছি। কোথাও তো হুমকি দেওয়া হয়নি। এ সব মিথ্যা অভিযোগ।’ তৃণমূলের জেলা সভাপতি স্বপন দেবনাথ বলেন, ‘বিজেপির এখন কাজ মিথ্যা অভিযোগ করা আর যে কোনও বক্তব্যের অপব্যাখা করা। মানুষ ঠিক এর জবাব দেবেন।’