উত্তরবঙ্গজুড়ে খাদ্যসামগ্রী বিলি

239

উত্তরবঙ্গ ব্যুরো: লকডাউনে সমস্যায় পড়েছেন সাধারন মানুষ। শুরু থেকেই অসহায়দের পাশে দাঁড়িয়েছে বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা, ব্যক্তি ও দল।

রবিবার মাথাভাঙ্গা-২ ব্লকের বরাইবাড়ি বটতলা তরুণ সংঘ পাঠাগারের পরিচালনায় সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে প্রায় শতাধিক দুস্থ পরিবারকে খাদ্যসামগ্রী বিলি করা হয়। উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের অনগ্রসর শ্রেণী কল্যাণ দপ্তরের মন্ত্রী বিনয় কৃষ্ণ বর্মন, মাথাভাঙ্গা-২ পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি দীপ্তি তরফদার রায় সহ প্রমুখ ব্যক্তিবর্গ।

- Advertisement -
উত্তরবঙ্গজুড়ে খাদ্যসামগ্রী বিলি| Uttarbanga Sambad | Latest Bengali News | বাংলা সংবাদ, বাংলা খবর | Live Breaking News North Bengal | COVID-19 Latest Report From Northbengal West Bengal India
খাদ্যসামগ্রী বিলি করছেন মন্ত্রী বিনয়কৃষ্ণ বর্মন।

এদিন তুফানগঞ্জের নাটাবাড়ি-১ ও ২ গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায় ত্রান বিলি করেন নাটাবাড়ি কেন্দ্রের বিধায়ক তথা উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন মন্ত্রী রবীন্দ্রনাথ ঘোষ। অন্যদিকে দেওচড়াইয়ে ত্রান বিলি করেন সিপিআইএম নেতা তথা প্রাক্তন বিধায়ক তমসের আলী। প্রায় ৭০ জনকে খাদ্যসামগ্রী দেওয়া হয়েছে।

হলদিবাড়ি সারস্বত সংঘ থেকে প্রায় ২০০ জন বাসিন্দাকে খাদ‍্যসামগ্ৰী তুলে দেন নিখিল দে, বিপিন রায় ও সংগঠনের অন‍্য প্রতিনিধিরা। সংগঠনের পক্ষে চন্দ্রমোহন রায় জানান, এদিন প্রায় ২০০ শহুরে দুঃস্থ বাসিন্দাকে খাদ‍্যসামগ্ৰী দেওয়া হয়েছে। উপস্থিত সকলের মধ্যে করোনা নিয়ে সচেতন করার পাশাপাশি বাসিন্দাদের মাস্ক ও স‍্যানিটারাইজার বিলি করা হয়েছে।

বিকেলে বঙ্গীয় প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির তরফে শিক্ষক নেতারা বাড়ি বাড়ি গিয়ে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করেন।সংগঠনের হলদিবাড়ি সার্কেল কমিটির সম্পাদক আব্দুল জলিল সরকার বলেন, খাদ্যসামগ্রী বিতরণের পাশাপাশি বাসিন্দাদের করোনা বিষয়ে সচেতনতামূলক প্রচার ও ছাত্রছাত্রীদের জন্য খাতা-কলম বিতরণ করা হয়।

মেখলিগঞ্জের বিধায়ক অর্ঘ্য রায় প্রধান ব্যক্তিগত উদ্যোগে শহরের ভবঘুরে, ভিখারি, দুঃস্থ ও পথশিশুদের রান্না করা খাবার বিতরণ করেন। জলপাইগুড়ি শিশু ডেভলপমেন্ট ফোরামের তরফে দক্ষিণ বড় হলদিবাড়ির দেবোত্তর বক্সিগঞ্জ এলাকার পথশিশুদের মধ্যে পুষ্টিকর খাবার ও সাবান তুলে দেন সমীর দাস, সীমা দাস।সম্পাদক মধুমিতা দাস বলেন, এছাড়াও হলদিবাড়ি শহরের কালীবাড়ি মোড় এলাকার এক চার মাসের শিশুর জন্য খাবার দেওয়া হয়।

দুস্থ মানুযের পাশে দাঁড়াল আইনি পরিষেবা কতৃপক্ষের কর্মী ও সহায়কদের সংগঠন প্রচেষ্টা। জলপাইগুড়ি জেলা আইনি পরিষেবা কতৃপক্ষের কর্মী ও মালবাজার মহকুমার আইনী সহায়কেরা রবিবার মাল ব্লকের কুমলাই গ্রাম পঞ্চায়েতের বাঁশবাড়ি এলাকার ৬০টি পরিবার ও নাগরাকাটা ব্লকের নর্থ ইনডং বনবস্তি এলাকার ৪০টি পরিবারের হাতে খাদ্যসামগ্রী তুলে দেয়। উপস্থিত ছিলেন জেলা আইনি পরিষেবা কর্তৃপক্ষের কর্মী দীপ্তরূপ কর, সালিনি দাস সহ মাল মহকুমার মাল, মেটেলি ও নাগরাকাটা ব্লকের আইনি সহায়করা।

রাজ্যসভার সাংসদ ও দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের সভানেত্রী অর্পিতা ঘোষ কুমারগঞ্জের সমজিয়া গ্রাম পঞ্চায়েতের জিরো পয়েন্ট এলাকার অভাবী মানুষগুলির জন্য ত্রান পাঠানো হল। উপস্থিত ছিলেন কুমারগঞ্জের বিধায়ক তোরাফ হোসেন মন্ডল, জেলা তৃণমূল সম্পাদক বিপ্লব মন্ডল, সাবের আলি সরকার, জাহিদুল মন্ডল প্রমুখ নেতৃবৃন্দ। বিধায়ক তোরাফ হোসেন মন্ডল বলেন, এই লকডাউনে সীমান্তের গেট বন্ধ থাকায় কাঁটাতারের ওপারে জিরো পয়েন্টের ভারতীয়দের অবস্থা খুবই খারাপ। তাই সাংসদের পাঠানো ত্রান সামগ্রী ছিন্নমূল মানুষের হাতে তুলে দিলাম। আগামীতে প্রয়োজন হলে আরও ত্রান সামগ্রী দিয়ে যাব।

উত্তরবঙ্গজুড়ে খাদ্যসামগ্রী বিলি| Uttarbanga Sambad | Latest Bengali News | বাংলা সংবাদ, বাংলা খবর | Live Breaking News North Bengal | COVID-19 Latest Report From Northbengal West Bengal India
সাংসদের পাঠানো ত্রান সামগ্রী তুলে দেওয়া হল

মালদার চাঁচলে ব্যক্তিগত উদ্যোগে প্রাথমিক স্কুলের এক প্রধান শিক্ষক চাঁচল-১ ব্লকের অলিহন্ডার রাজনগর প্রাথমিক বিদ্যালয়ে খাদ্যসামগ্রী বিলি করেন। তিনি জানান, নিজের বেতনের প্রায় কুড়ি হাজার টাকা খরচ করে বাজার থেকে খাদ্যসামগ্রী কিনে গ্রামের ৬০ জন মানুষকে সেগুলি বিলি করেন।