প্রয়াত কিংবদন্তী ফুটবলার চুনী গোস্বামী

538

কলকাতা: প্রয়াত কিংবদন্তী ফুটবলার চুনী গোস্বামী। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৮২ বছর। বেশ কয়েকমাস ধরে তিনি শারীরিক অসুস্থতায় ভুগছিলেন। বৃহস্পতিবার সকালে তাঁকে যোধপুর পার্কের একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বিকাল ৫টা নাগাদ হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে সেখানেই তাঁর মৃত্যু হয়। পরিবার সূত্রে তাঁর মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করা হয়েছে। ১৯৬২ সালে তাঁর নেতৃত্বে এশিয়ান গেমসে সোনা জেতে ভারত।

১৯৩৮ সালের ১৫ জানুয়ারী অবিভক্ত বাংলার কিশোরগঞ্জ জেলায় জন্মগ্রহণ করেন চুনী গোস্বামী। তাঁর আসল নাম সুবিমল গোস্বামী হলেও চুনী গোস্বামী হিসেবেই তিনি সকলের কাছে পরিচিত। ১৯৪৬ সালে মাত্র ৮ বছর বয়সে মোহনবাগান জুনিয়র দলে অভিষেক হয় তাঁর। ১৯৫৪ অবধি জুনিয়র দলের সদস্য ছিলেন তিনি। ২০০৫ সালে তিনি কলকাতার শেরিফ ছিলেন।

- Advertisement -

১৯৬২ সালে তাঁর নেতৃত্বে এশিয়ান গেমসে সোনা জেতে ভারত। দেশের হয়ে ৫০টি ম্যাচে প্রতিনিধিত্ব করেন তিনি। ১৯৬০-১৯৬৪ পর্যন্ত পাঁচটি মরসুমে মোহনবাগানে নেতৃত্ব দেন তিনি। ১৯৬৪ সালে এশিয়া কাপে তাঁর নেতৃত্বে রূপো জেতে ভারত। ১৯৬৮ সালে ফুটবল থেকে অবসর নেন তিনি। এরপর ভারতীয় ফুটবল দলের কোচিংয়ের দায়িত্বেও ছিলেন তিনি।

ফুটবলের পাশাপাশি ক্রিকেটেও দক্ষতার ছাপ রাখেন চুনী গোস্বামী। ছাত্র জীবনে কলকাতা ইউনিভার্সিটির হয়ে একই বছরে তিনি ক্রিকেট ও ফুটবল দলের অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করেন। তাঁর নেতৃত্বে ১৯৭১-৭২ মরসুমে বাংলা দল রঞ্জি ট্রফি ফাইনাল খেলে।

চুনী গোস্বামী ১৯৬২ সালে ‘বেস্ট ট্রাইকার অফ এশিয়া’ এই সম্মান পান। ১৯৬৩ সালে ‘অর্জুন পুরস্কার’ পান। ১৯৮৩ সালে ভারত সরকার তাঁকে ‘পদ্মশ্রী’ সম্মান দেয়। ২০০৫ সালে মোহনবাগান ক্লাব তাঁকে মোহনবাগান রত্ন সম্মানে ভূষিত করে। বাংলা সিনেমার ‘প্রথম প্রেম’ ছবিতেও তিনি অভিনয় করেন। তাঁর প্রয়াণে ক্রিড়া জগতে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।