বৃদ্ধ খুনের ঘটনায় নমুনা সংগ্রহ করল ফরেনসিক

242

বর্ধমান: এক সপ্তাহ পরেও বর্ধমানের তেজগঞ্জের বৃদ্ধ খুনের কিনারা করতে পারল না পুলিশ। দুষ্কৃতীদের সম্পর্কে জানতে শনিবার ফের ফরেনসিক দলের সিনিয়র সায়েন্টিস্ট চিত্রাক্ষ সরকারের নেতৃত্বে তিন সদস্যের দল বৃদ্ধর বাড়িতে পৌঁছন। নানান নমুনা সংগ্রহ ছাড়াও সন্দেহভাজন আততায়ীর স্কেচ তৈরির প্রক্রিয়া শুরু করেছে। তেজগঞ্জের আপ লেনের সিসি টিভি ফুটেজ যোগাড় করারও চেষ্টা হচ্ছে। তবে, আততায়ীরা কবে ধরা পড়ে সেদিকেই তাকিয়ে বৃদ্ধর পরিবার।

বর্ধমান শহরের তেজগঞ্জের বাড়ির ভিতর থেকে গত ২ জুলাই বিকেলে উদ্ধার হয় বছর ৮৪ বয়সী বৃদ্ধ গোরাচাঁদ দত্ত-র রক্তাত মৃতদেহ। ওই দিন বাড়িতে বৃদ্ধ একাই ছিলেন। তাঁর স্ত্রী মীরাদেবী শহরের জিলাপি বাগানে আত্মীয়ের বাড়িতে বেড়াতে যান। বিকালে বাড়ি ফিরে তিনি দেখেন তাঁদের বাড়ির গেটের সামনে হলুদ গেঞ্জি পরা এক অপরিচিত যুবক দাঁড়িয়ে রয়েছেন। গেট খোলা ছিল। মীরাদেবী যুবককে জিজ্ঞাসা করেন কি হয়েছে ? তখন সে বলে ঘরে ঢুকে দেখুন। ঘরে ঢুকে মীরাদেবী দেখতে পান, ঘরের মেঝেতে রক্তাত অবস্থায় পড়ে রয়েছে তাঁর স্বামীর নিথর দেহ।পরে ওই যুবকে আর দেখতে পাননি মীরাদেবী। খুনের ঘটনায় ওই যুবকের কোনও ভূমিকা ছিল কিনা তা পুলিশ ও সিআইডির মাথাব্যথা শুরু হয়েছে।

- Advertisement -

মীরাদেবীর থেকে পুলিশ জানতে পেরেছে, খণ্ডঘোষের একটি গ্রামে তাঁর শ্বশুরবাড়ি। সেখানকার বাস্তুজমি নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে এক পরিচিতের সঙ্গে তাঁদের মন কষাকষি চলছিল।তারা এঈ খুনের ঘটনায় জড়িত কিনা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে পুলিশ সূত্রে খবর। সিনিয়র সায়েন্টিস্ট চিত্রাক্ষ সরকার বলেন, প্রয়োজনীয় নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। তদন্তের স্বার্থে বেশি কিছু বলা যাবে না।