তিরুবনন্তপুরম, ২২ সেপ্টেম্বরঃ ধর্ষণে অভিযুক্ত প্রাক্তন বিশপ মুলাক্কালকে দু’দিনের পুলিশ হেপাজতের নির্দেশ দিল কেরলের একটি আদালত। দু’দিন জিজ্ঞাসাবাদের পর শুক্রবার রাতে মুলাক্কালকে গ্রেফতার করেছিল কেরল পুলিশ। শনিবার তাকে আদালতে পেশ করে তিনদিন নিজেদের হেপাজতের আবেদন জানিয়েছিল পুলিশ। তাদের আবেদন মেনেই শনিবার কেরলের কোট্টায়ম জেলার পালা শহরের ম্যাজিস্ট্রেট কোর্ট মুলাক্কালকে আগামী ২৪ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত পুলিশি হেপাজতের নির্দেশ দেয়। মুলাক্কালের আইনজীবী তাঁর জামিনের আবেদন জানালেও বিচারক তা নাকচ করে দেন।

পুলিস হেপাজত রিপোর্টে বলেছে, ওই সন্ন্যাসিনীকে যৌন নিগ্রহের মতলবে ২০১৪ সালের ৫মে ওই কনভেন্টে গিয়েছিলেন। তারপর কনভেন্টের গেস্ট হাউসের ২০ নম্বর ঘরে রাত ১০.‌৪৮ মিনিট নাগাদ ওই সন্ন্যাসিনীকে ডাকেন। তারপরই দরজা বন্ধ করে তাঁকে বাধ্য করেন অস্বাভাবিক যৌন সম্পর্কে লিপ্ত হতে। এরপর তাঁকে হুমকি দেন, ঘটনা জানাজানি হলে সন্ন্যাসিনীকে ফল ভুগতে হবে। রিপোর্টে পুলিশ আরও বলেছে, ওই ঘটনার পরের দিনও ওই সন্ন্যাসিনীকে ওই ঘরেই ধর্ষণ করেছিলেন মুলাক্কাল। তারপর ২০১৬ সাল পর্যন্ত ওই ঘরেই মোট ১৩ বার তাঁকে ধর্ষণ করেন মুলাক্কাল। মুলাক্কালের গ্রেফতারির পর শুক্রবারই ক্যাথলিক বিশপস্ কনফারেন্স অফ ইন্ডিয়া বা সিবিসিআই ভারতীয় বিচার ব্যবস্থার উপর আস্থা প্রকাশ করেছিল। ‌