চোট লুকিয়ে বিলেত সফরে শুভমান

নয়াদিল্লি : পায়ে চোটে মাস দুয়েক মাঠের বাইরে।

বিলেত সফরে এখনও দলের সঙ্গে থাকলেও, ইংল্যান্ড সিরিজে শুভমান গিলকে পাওয়ার আশা ক্ষীণ। এরমধ্যেই শুভমানের চোট নিয়ে নতুন বিতর্ক। অভিযোগ, চোট লুকিয়ে বিলেত সফরে তরুণ ওপেনার! একাধিক প্রাক্তন ক্রিকেটার যা নিয়ে প্রশ্ন তুলতে শুরু করেছেন। অভিযোগের আঙুল, টিম ম্যানেজমেন্ট, সাপোর্ট স্টাফদের দিকেও। যুক্তি, চোট লুকিয়ে ভুল করেছে শুভমান। কিন্তু দলে ফিজিও, মেডিকেল স্টাফরা রয়েছে।  তাহলে কেন আরও আগে নজরে পড়ল না!

- Advertisement -

প্রাক্তন উইকেটকিপার সাবা করিমের অভিযোগ, শুভমান চোট লুকিয়েছে দেখে আমি  অবাক। অনেকদিন ধরেই টিম ইন্ডিয়ার সঙ্গে রয়েছে। আর ভারতীয় দলে ফিজিও, মেডিকেল স্টাফরাও আছেন। নিয়মিত ক্রিকেটারদের ফিটনেসের ওপর নজর রাখা হয়। তারপরও কীভাবে এটা সম্ভব! কীভাবে সবার নজর এড়িয়ে গেল? আরও আগে কেন ধরা পড়ল না! সত্যিই অবাক করার মতো ব্যাপার।

সাবা করিমের সুরে প্রশ্ন তুলেছেন প্রাক্তন স্পিনার নিখিল চোপড়াও। চোটের জন্য গত অস্ট্রেলিয়া সফরে শুরুতে রোহিত শর্মাকে নিয়ে যাওয়া হয়নি। হিটম্যানের প্রসঙ্গ টেনে নিখিল চোপড়ার যুক্তি, রোহিতের মতো সিনিয়ার প্লেয়ারের জন্য যে নিয়ম প্রযোজ্য, তা বাকি সবার ক্ষেত্রেই তো কার্যকর হওয়া উচিত। এক্ষেত্রে তা কেন হল না।

শুভমানের অনুপস্থিতিতে রোহিতের ওপেনার পার্টনারের দৌড়ে মায়াঙ্ক আগরওয়াল এগিয়ে আছেন লোকেশ রাহুলও। সফরে দলের সঙ্গে থাকা বাংলার অভিমন্যু ঈশ্বরণের কথাও ভাবা হচ্ছে ব্যাকআপ হিসেবে। টিম ম্যানেজমেন্ট আবার চাইছে শ্রীলঙ্কা সফররত পৃথ্বী শ-কে। বিরাট কোহলি, রবি শাস্ত্রীদের যে পদক্ষেপ নিয়ে বেজায় চটেছেন কপিল দেব। বিশ্বজয়ী অধিনায়কের দাবি, বিরাটরা আদপে অপমান করছে মায়াঙ্ক-লোকেশকেই।

কপিলের যুক্তি, এর কোনো প্রয়োজন (পৃথ্বীকে আনা) আছে বলে আমি মনে করি না। নির্বাচকরা একটা দল বেছে দিয়েছে, তার প্রতি শ্রদ্ধা রাখা উচিত। আমি নিশ্চিত ওদের (শাস্ত্রী, বিরাট) পরামর্শও নেওয়া হয়েছে দল নির্বাচনে। আর মায়াঙ্ক, লোকেশ দুজনেই ভালো ওপেনার। এরপরও কী বিকল্প প্রয়োজন? দলে যে ব্যাকআপ ওপেনাররা রয়েছে, তাদের মধ্যেই একজনকে খেলানো হোক। নাহলে, ওদের অপমান করা হবে।