দলত্যাগী প্রাক্তন বিধায়ককে প্রাণে মারার ষড়যন্ত্র! কাঠগড়ায় তৃণমূল

144

বুনিয়াদপুর: খুন হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা প্রকাশ করলেন সদ্য তৃণমূল থেকে বিজেপিতে যোগদান করা গঙ্গারামপুরের প্রাক্তন বিধায়ক সত্যেন্দ্রনাথ রায়। এদিন তিনি জানান, তাঁকে প্রাণে মারার ষড়যন্ত্র চলছে। এতে অভিযোগের তির তৃণমূলের দিকে। সত্যেন্দ্রবাবুর অভিযোগ, তৃণমূল গোপন বৈঠক করে তাঁকে মেরে ফেলার ষড়যন্ত্র করছে। বিষয়টি বিজেপির জেলা নেতৃত্বকে জানানো হয়েছে। যদিও এই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্ব।

তৃণমূলের জন্মলগ্ন থেকেই দলের একনিষ্ট কর্মী ছিলেন সত্যেন্দ্রনাথ রায়। তৃণমূলের টিকিটে তিনি গঙ্গারামপুরের বিধায়কও নির্বাচিত হন। পরবর্তী নির্বাচনে হেরে গিয়ে দলের গোষ্ঠী কোন্দলকে দায়ি করেন তিনি। তবে দলের শীর্ষনেত্রীর স্নেহধন্য থাকায় জেলার এসটি এসসি ও ওবিসি সেলের সভাপতি ও বংশীহারি ব্লকের সভাপতি পদে ছিলেন। তবে বিভিন্ন সময়ে গোষ্ঠী কোন্দলে কোণঠাসা হয়ে পড়েছিলেন। গতবছর ১৯ ডিসেম্বর হঠাৎই মেদিনীপুর কলেজ মাঠে শুভেন্দু অধিকারীর বিজেপিতে যোগদানের দিন একই মঞ্চে অমিত শা’য়ের হাত থেকে বিজেপির ঝান্ডা তুলে নেন সত্যেন্দ্রবাবু। বর্তমানে বিজেপির হয়ে কাজ করছেন তিনি। কিন্তু প্রাণনাশের আশঙ্কা প্রকাশ করায় তার এলাকায় শোরগোল পড়ে গিয়েছে। যদিও এই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন বংশীহারি ব্লকের তৃণমূলের সহ সভাপতি সুরজিৎ ঘোষ।

- Advertisement -