প্রয়াত স্বাধীনতা সংগ্রামী সোমরা ওঁরাও

676

বালুরঘাট, ১৮ এপ্রিলঃ প্রয়াত হলেন দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার শেষ স্বাধীনতা সংগ্রামী সোমরা ওঁরাও। দীর্ঘদিন ধরে বার্ধক্য জনিত রোগে ভুগছিলেন তিনি। গত ১ এপ্রিল থেকে বালুরঘাট হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ১০৭ বছর।

উল্লেখ্য, ১৯৪২ সালে  বালুরঘাট মহকুমায় ভারত ছাড়ো আন্দোলন জোর মাত্রা নিয়েছিল। আন্দোলনের অন্যতম সেনানী ছিলেন সোমরা ওঁরাও। প্রায় তিন দিন ধরে বালুরঘাটকে নিজেদের দখলে রেখেছিল বিপ্লবীরা। তাঁদের আক্রমণের মাত্রা এত বেশি হয়েছিল যে ইংরেজ সেনারা সেই সময় বালুরঘাট থেকে পালিয়ে গিয়েছিল। তবে ওই তিন দিন পরেই অর্থাৎ ১৮ সেপ্টেম্বর ফের ইংরেজরা পূর্ণ শক্তি নিয়ে ফিরে এসে বালুরঘাট মহকুমার দখল নেয়। হার মানতে চায়নি বিপ্লবীরাও। বালুরঘাট শহর মুক্ত করে দিলেও গ্রামীণ এলাকাগুলিতে ইংরেজদের সঙ্গে সরাসরি সংঘাতে চলে যান বিপ্লবীরা। তপনের পারিলা এলাকাতেও কয়েকশো মানুষ কিন্তু ইংরেজদের সঙ্গে সরাসরি যুদ্ধে নেমে পড়েছিল। ওই বিপ্লবীদের দলে এই কইকুড়ি গ্রামের বাসিন্দা সোমরা ওঁরাও সহ কয়েকশো মানুষ তীর-ধনুক নিয়ে ইংরেজদের সঙ্গে অসম যুদ্ধে নেমেছিল। ওইদিন ৪ বিপ্লবীর ব্রিটিশদের গুলিতে মৃত্যু হয়েছিল এবং প্রায় কুড়ি জন বিপ্লবী গুলিবিদ্ধ হয়েছিলেন। গুলি লেগেছিল সোমরা ওঁরাও এর পায়েও। স্বাধীনতার পর ভারত সরকার তাম্রফলক দিয়ে সম্মানিত করেছিল সোমরা ওরাওকে। তাঁর প্রয়াণে শোকের ছায়া নেমে এসেছে গোটা জেলায়।

- Advertisement -

সংবাদদাতাঃ সুবীর মহন্ত