সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আড়ালে জুয়ার আসর

289

শীতলকুচি: কোচবিহার জেলার মাথাভাঙ্গা মহকুমার বিভিন্ন জায়গায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আড়ালে চলছে জুয়ার আসর। জুয়ায় সর্বস্ব হারাচ্ছেন সাধারণ মানুষ।

অভিযোগ, বেশ কয়েকদিন ধরেই মাথাভাঙ্গা মহকুমার বিভিন্ন এলাকায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আড়ালে জুয়ার আসর চলছে। কোথাও আবার অশ্লীল নাচ-গানের আসর বসানো হচ্ছে বলে অভিযোগ। বুধবার শীতলকুচি ব্লকের লালবাজার গ্রাম পঞ্চায়েতের কৈলাশের ঘাট, খলিসামারি গ্রাম পঞ্চায়েতের কালিবাড়ি ও মাথাভাঙ্গা ১ ব্লকের জোরপাটকি গ্রাম পঞ্চায়েতের নেন্দারপার গ্রামে যাত্রার আসর বসে। প্রতি জায়গায় ২ থেকে ৩ দিন করে যাত্রাপালার আসর বসানো হয়।

- Advertisement -

খোলা প্যাণ্ডেলে যাত্রা গানের আসর বসানোর প্রচার এলাকায় করা হয়। এরপরই সন্ধ্যা নামতেই গানের আসরে ভিড় করেন বাসিন্দারা। যাত্রা মঞ্চের সামনের চেয়ে বেশি ভিড় হয় জুয়ার আসরে। জুয়ার আসরে যুবক, বয়স্কদের সঙ্গে স্কুল পড়ুয়াদের ভিড়ও লক্ষ্য করা যায়। পাশাপাশি রমরমিয়ে মদ বিক্রিও করা হচ্ছে বলে অভিযোগ। সূত্রের খবর, যাত্রা ও জুয়ার আসর বসানোর পিছনে রাজনৈতিক নেতাদের মদত থাকায় বাসিন্দারা প্রতিবাদ করতে পারেন না। স্থানীয় এক বাসিন্দা জানান, নিজেদের নিরাপত্তার কথা ভেবে এইবিষয়ে তাঁরা প্রতিবাদ করতে চান না। পুলিশের ভমিকাও নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন তাঁরা। পুলিশ সদর্থক ভূমিকা গ্রহণ করছেন না বলে জুয়ার আসর বসার প্রবণতা বাড়ছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয়রা। যদিও এইবিষয়ে কোচবিহার পুলিশ সুপার কে কান্নন বলেন, ‘পুলিশ অভিযোগ খতিয়ে দেখে কড়া ব্যবস্থা নেবে।’