ঘুরে দাঁড়ানোর অঙ্গীকার সাউথগেটের

লন্ডন : তীরে এসে তরী ডুবল ইংল্যান্ডের। এবং সেই কুখ্যাত টাইব্রেকারে।

ইতালির কাছে ইউরো কাপের ফাইনাল হেরে আরও দীর্ঘায়িত হল ইংল্যান্ডের ৫৫ বছরের অধরা ট্রফি জয়ে অপেক্ষা। ম্যাচ শেষে ইউরো কাপ হাতে যখন উৎসবে মেতে রবার্তো মানচিনি সহ গোটা ইতালি টিম তখন শ্মশানের নীরবতা থ্রি লায়ন্স শিবিরে।

- Advertisement -

১২০ মিনিট খেলার ফলাফল ১-১ থাকার পর টাইব্রেকার। সেখানে ইংল্যান্ডের হয়ে ভাগ্যনির্ধারক শেষ পেনাল্টি কিক ইতালির গোলরক্ষক জিয়ানলুইজি ডোনারুম্মার হাতে জমা দিয়ে বসেন বুকায়ো সাকা। তার আগে সুযোগ ফসকান মার্কাস র‌্যাশফোর্ড, জ্যাডন স্যাঞ্চোও। আজুরি ডাগআউটে ততক্ষণে উৎসব শুরু হয়ে গিয়েছে। ক্যামেরা অবশ্য তার মধ্যেও ফোকাস করছিল ইংল্যান্ড কোচকে। মাথা নীচু, চোয়াল শক্ত। বুকে পাথর রেখে যেন নিজের শোক আড়াল করছিলেন গ্যারেথ সাউথগেট। নিজেকে সামলে কান্নায় ভেঙে পড়া সাকাকে সান্ত্বনা দিতেও দেখা গেল তাঁকে। ৯৬, ২০১৮-র পর এবার একুশে কুড়ির ইউরো- টাইব্রেকার ভূত এবারও পিছু ছাড়ল না সাউথগেটের!

ফাইনাল হারের পর দায়িত্বশীল অভিভাবকের মতো ফুটবলারদের আড়াল করে ব্যর্থতার দায় নিজের ঘাড়ে নিলেন ইংল্যান্ডের হেডস্যর। টাইব্রেকারে অভিজ্ঞ মুখের বদলে কেন বেছে নিলেন অনভিজ্ঞ ত্রয়ীকে? প্রশ্নের জবাবে সাউথগেট বলেন, এটা সম্পূর্ণ আমার সিদ্ধান্ত। আমিই ঠিক করেছিলাম পেনাল্টি শুটআউট হলে কারা শট মারতে যাবে। আমরা জিততে পারিনি। তারজন্য সাকা কিংবা স্যাঞ্চো, র‌্যাশফোর্ডের কোনও ভুল নেই। আমরা একসঙ্গে মিলে পরিকল্পনা সাজিয়েছি। সফল হইনি। কোচ হিসেবে এই দায় আমার। তবে মানচিনির ইতালিকেও কৃতিত্ব দিতে ভুললেন না সাউথগেট।