সামনেই পুজো, বোনাসের দাবিতে সরব চা শ্রমিকরা

110

মেটেলি: দেবীপক্ষের সূচনাতেও নিরাশার সুর মেটেলি ব্লকের ডানকান্সের মালিকানাধীন নাগেশ্বরী ও কিলকোট চা বাগানে। এখনও বোনাস পাননি শ্রমিক-কর্মচারীরা। এখনও বোনাস নিয়ে কোনও সিদ্ধান্ত না হওয়ায় সরব নাগেশ্বরী চা বাগানের শ্রমিকরা। বুধবার চা বাগানের ফ্যাক্টরি গেটের সামনে ভিন্ন শ্রমিক সংগঠন যৌথভাবে গেট মিটিং করে। প্রায় এক ঘণ্টা গেট মিটিংয়ের পর শ্রমিকরা ফের কাজে যোগ দেন।

গত ২৮ সেপ্টেম্বর মালবাজার সহকারী শ্রম আধিকারিকের অফিসে কিলকোট ও নাগেশ্বরী চা বাগান নিয়ে ত্রিপাক্ষিক বৈঠক হলেও তা ভেস্তে যায়। ওই দিন মালিকপক্ষ ১৩.২৫ শতাংশ হারে বোনাস দেওয়ার কথা বললে শ্রমিকরা তা মানেনি। নাগেশ্বরী চা বাগানের শ্রমিক নেতা লক্ষণ ভূমিজ জানান, ত্রিপাক্ষিক বৈঠকের পরে বাগানের ম্যানেজার তাঁদের অফিসে ডেকে পাঠান। মালিকপক্ষ ১৪ শতাংশ হারে বোনাস দিতে রাজি হলেও তা দুই কিস্তিতে দেওয়ার কথা বলে। শ্রমিকরা ১৭ শতাংশ হারে বোনাস এক কিস্তিতে দেওয়ার কথা বলেন। কিন্তু তাতেও রাজি নন তাঁরা। দুই কিস্তিতে বোনাস দিতে হলে ২০ শতাংশ হারে বোনাসের দাবি করা হয়। দ্রুত বোনাস নিয়ে সিদ্ধান্ত না হলে বৃহত্তর আন্দোলনে যাওয়ার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন তাঁরা। বাগানের শ্রমিকরা জানান, কয়েকদিন পরই পুজো। এখনও বোনাস পেলেন না। কিলকোট ও নাগেশ্বরী চা বাগানের ম্যানেজার শুভঙ্কর ভুজেল জানান, যাবতীয় বিষয় ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে।

- Advertisement -