পেশা বদলে ত্রিস্তরীয় মাস্ক তৈরি, লাভের মুখ দেখছেন গৌতম

130

রায়গঞ্জ: করোনা সংক্রমণ এড়াতে ত্রিস্তরীয়  মাস্ক তৈরির কাজে নেমে পড়েছেন রায়গঞ্জের দেবীনগরের বাসিন্দা গৌতম কর্মকার। নিজের জুয়েলারি এবং ইমিটেশন গয়নার ব্যবসা গুটিয়ে রেখে দিন-রাত মাস্ক তৈরি করছেন তিনি। প্রতিদিন বিভিন্ন ডিজাইনের ১০০ থেকে ১২০টি মাস্ক তৈরি করেন। সাধারন মানুষের জন্য অল্প খরচে সহজলভ্য উপকরণ দিয়েই ত্রিস্তরীয় মাস্ক তৈরি করছেন তিনি। ফলে তা সবই বিক্রি হয়ে যাচ্ছে। এতে লাভের মুখ দেখেছেন গৌতমবাবু।

গৌতম কর্মকার বলেন, ‘গতবছর করোনার শুরুতে মাস্ক তৈরির কাজ শুরু করি। জুয়েলারি ও ইমিটেশনের গয়নার ব্যবসা ছেড়ে মাস্ক তৈরিতে নেমেছিলাম। প্রথমে একস্তরীয় মাস্ক তৈরি শুরু করলেও সেভাবে চাহিদা ছিল না। পরে ত্রিস্তরীয় মাস্ক তৈরি শুরু করি। ওই মাস্কের বাইরের স্তর দুটো পলিপ্রোপিলিন ফ্যাব্রিক দিয়ে তৈরি। আর ভিতরের দিকের অংশটি একটি তুলোর তোয়ালে অভ্যন্তরীণ অংশ দিয়ে প্রস্তুত করা হচ্ছে। এই মাস্ক পরে শ্বাস নিতে কোনও অসুবিধা হচ্ছে না। লকডাউনের জেরে জুয়েলারির ব্যবসা প্রায় ছিল না। উপায় না পেয়ে মাস্ক তৈরির কাজে নেমে পড়ি। প্রথমে চাহিদা ছিল না। ফলে সংসার চালাতে পারছিলাম না। কিন্তু এখন যথেষ্ট চাহিদা।‘

- Advertisement -