দুঃস্থ পরিবারকে সাহায্য গাজোল থানার পুলিশের

ছবি: পঙ্কজ ঘোষ

গৌতম দাস, গাজোল: লকডাউনের সময় পুলিশ যে শুধু এলাকায় টহল দিয়ে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখার চেষ্টা করছে তা নয়। সাধ্যমত ত্রাণও বিলি করছে। এর মধ্যেই বেশ কিছু দুঃস্থ পরিবারের হাতে প্রয়োজনীয় ত্রাণ সামগ্রী তুলে দিয়েছে গাজোল থানার পুলিশ। দুঃস্থ মানুষদের দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিচ্ছে গাজোল থানার পুলিশ, একথা জানার পর থেকেই সাহায্যের জন্য পুলিশের দ্বারস্থ হচ্ছেন দুঃস্থ মানুষেরা। গতকাল এইরকমই এক ভিক্ষুক পরিবারের হাতে ত্রাণ সামগ্রী তুলে দিল গাজোল থানার পুলিশ।

গাজোলের তুলসীডাঙ্গা এলাকার বাসিন্দা বিশ্বনাথ সরকার। সম্পূর্ণ অন্ধ তিনি। স্ত্রী অর্চনা সরকারও প্রায় অন্ধ। এছাড়াও পরিবারে রয়েছে বছরখানেক বয়সের শিশু কন্যা সোনালী। আর এক মেয়ে মালদায় এক স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার তদারকিতে পড়াশুনা করছে। মূলত ভিক্ষে করেই দিন কাটে তাঁদের। মাঝেমধ্যে পান প্রতিবন্ধী ভাতা। কিন্তু লকডাউনের পর বন্ধ হয়ে গিয়েছে ভিক্ষে। তাই তারপর থেকেই চরম সমস্যার মধ্যে পড়েছেন তাঁরা।

- Advertisement -

সম্প্রতি তাঁরা জানতে পারেন গাজোল থানার পুলিশ গরিব মানুষদের সাহায্য করছে। আর এই খবর পেয়েই সাহায্যের আশায় থানায় আসেন তাঁরা। বিশ্বনাথবাবু এবং অর্চনা দেবী জানালেন, তাঁরা জানতে পেরেছেন গাজোল থানার কাছে সাহায্য চাইতে গেলে পুলিশ গরিব মানুষদের সাহায্য করছে। বিষয়টি জানার পরই প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহণ করেন গাজোল থানার ওসি হারাধন দেব।

বাজার থেকে কিনে নিয়ে আসা হয় চাল, আলু সহ অন্যান্য সামগ্রী। গাজোল থানার এএসআই শুভেন্দু বিকাশপতি এই সমস্ত সামগ্রী তুলে দেন বিশ্বনাথবাবুর হাতে। সাংবাদিকদের তরফে কিছু আর্থিক সাহায্য করা হয়। ত্রাণ পেয়ে খুশি বিশ্বনাথবাবু এবং অর্চনা দেবী। গাজোল থানার পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে শুধু এলাকার শান্তিশৃঙ্খলা বজায় রাখাই নয়, লকডাউন পরিস্থিতিতে বেশ কিছু দুঃস্থ পরিবার আছেন যারা সত্যিই সমস্যার মধ্যে পড়েছেন, তাঁদের নানাভাবে সাহায্য করছে পুলিশ।