বিয়ের দাবিতে ধর্না যুবতীর

702

গয়েরকাটা: ধূপগুড়ি ব্লকের সাঁকোয়াঝোরা-১ গ্রাম পঞ্চায়েতের বাঙ্কুনবাজার এলাকায় এক যুবতীর প্রেমিকের বাড়িতে ধর্নায় বসার ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়াল। স্থানীয় সূত্রে খবর, রবিবার সকাল থেকে পার্শ্ববর্তী এলাকার যুবতী বিয়ের দাবি বাঙ্কুবাজার এলাকার বাসিন্দা মমিনুল হকের বাড়িতে বিয়ে দাবিতে ধর্নায় বসেন।

সেদিন থেকেই ছেলে এবং তাঁর বাবা বাড়ি থেকে ফেরার রয়েছে। রবিবার থেকে ধর্নায় বসার পরও ছেলের মা বিয়েতে রাজি না হওয়ায় এবং ছেলেকে বাড়িতে আসতে না বলায় এদিন মেয়ের বাড়ির লোকরা প্রায় ২ ঘণ্টা আংরাভাসা-তেলিপাড়া গ্রামীণ সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখান। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসে ধূপগুড়ি থানার পুলিশ। এরপর পুলিশি হস্তক্ষেপে পথ অবরোধ উঠে যায়।

- Advertisement -

ধর্নায় বসে থাকা ওই যুবতী বলেন, মমিনুলের সঙ্গে আমার ৩ বছরের প্রেম ছিল। ও আমাকে বিয়ে করবে বলে আসতে বলে। কিন্তু ওর মা ওকে বাড়ি থেকে ইচ্ছা করে সরিয়ে দেয়। মমিনুল আমাকেই ভালোবাসে। ও যদি আমাকে বিয়ে না করে তাহলে আমি এখানেই আত্মহত্যা করব। মেয়ের বাবা মহম্মদ ফরিজুদ্দিন বলেন, প্রথমে মেয়ের এই সম্পর্কে অমত ছিল। কিন্তু মেয়ে যেহেতু এই ছেলেকেই বিয়ে করতে চায়, সেহেতু আমি চাই এখানেই ওর বিয়ে হোক।

ছেলের মা আঞ্জুমা বেগম বলেন, চারবার এই মেয়ের সঙ্গে বিয়ে দেওয়ার জন্য মেয়ের বাবার কাছে প্রস্তাব পাঠানো হয়েছিল। কিন্তু তখন তাঁরা রাজি ছিলেন না। তবে এখন যেহেতু আমার ছেলের বিয়ে অন্যত্র ঠিক হয়েছে, তাই এঁরা এসে বিয়ের চাপ দিচ্ছে। আমার ছেলে কোথায় আছে তা আমি জানি না। খবর লেখা পর্যন্ত ধর্না চলছে। ঘটনাস্থলে মোতায়েন রয়েছে বিশাল পুলিশবাহিনী।