রবিনসন স্ট্রিটের ছায়া ট্যাংরায়, মায়ের মৃতদেহ আগলে বসে মেয়ে

136
Forensic investigator working at a crime scene

কলকাতা: ফের রবিনসন স্ট্রিটের ছায়া। এবারে অবশ্য দক্ষিণ কলকাতা নয় পূর্ব কলকাতার ট্যাংরা থানা এলাকায়। জানা গিয়েছে, ট্যাংরা থানার অদূরেই শীল লেনের একটি বাড়িতে বাস করতেন মা কৃষ্ণা দাস ও অবিবাহিতা মেয়ে সোমা। মা মানসিক বিকারগ্রস্ত থাকায় মেয়েকে কোনওক্রমেই বাড়ির বাইরে যেতে দিতেন না। এই নিয়ে তাঁদের মধ্যে প্রায় বচসা হত। কিন্তু সম্প্রতি পাঁচ-ছ’দিন ওই বাড়ি থেকে কোনও সাড়া শব্দ পাওয়া যায়নি। শনিবার রাতে ওই বাড়ি থেকে দুর্গন্ধ ছড়ালে স্থানীয় বাসিন্দারা পুলিশকে খবর দেন। পুলিশ এসে ওই বাড়ির দরজা ভেঙে ঘর থেকে পচাগলা অবস্থায় কৃষ্ণা দাসের মৃতদেহ উদ্ধার করে। সেই সময় মায়ের মৃতদেহ আগলে বসে ছিল সোমা। অসুস্থ অবস্থায় সোমাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে পুলিশ।

জানা গিয়েছে, প্রায়ই প্রতিবেশীদের সঙ্গে বচসা লেগে থাকতে কৃষ্ণাদেবীর। এব্যাপারে প্রতিবেশীরা থানায় একটি অভিযোগ জানালেও কোনও লাভ হয়নি। কিন্তু কিছুদিন ধরে কৃষ্ণাদেবী ও তাঁর মেয়ের কোনও সাড়া শব্দ পাচ্ছিলেন না প্রতিবেশীরা। গতকাল রাতে দুর্গন্ধ পেয়ে পুলিশে খবর দেন প্রতিবেশীরা। বাড়ি থেকে কৃষ্ণাদেবীর দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠানোর পাশাপাশি অসুস্থ মেয়ে সোমাকে হাসপাতালে ভর্তি করায় পুলিশ। দীর্ঘদিন না খেয়ে থাকার কারণে কৃষ্ণাদেবীর মৃত্যু হয়েছে বলে প্রাথমিক তদন্তে পুলিশের অনুমান। স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, তাঁরা মাঝে মধ্যে ওই কৃষ্ণাদেবী ও তাঁর মেয়েকে খাবার দিতেন। তবে সেই খাবার না খেয়ে বাইরে ফেলে দিতেন মা ও মেয়ে। গোটা ঘটনার তদন্তে নেমেছে পুলিশ।

- Advertisement -