অভিষেকের মাঠে নয়া শুরুর অপেক্ষায় ঋষভ

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা : তিন বছর আগে নটিংহ্যামের ট্রেন্ট ব্রিজে স্বপ্নপূরণ হয়েছিল তাঁর। কোচ তারক সিনহাকে টেস্ট অভিষেকের দিন ফোন করে আবেগে ভেসে গিয়েছিলেন তিনি। তার কয়েকদিন পরই ওভালে সিরিজের শেষ টেস্টে জীবনের প্রথম শতরান পেয়েছিলেন ঋষভ পন্থ।

২০১৮ সালের সেই সিরিজ বদলে দিয়েছিল ভারতীয় ক্রিকেটের ওয়ান্ডার কিডকে। মাঝের সময়ে পেশাদার ক্রিকেট কেরিয়ারে অনেক ওঠাপড়া দেখেছেন। আর ভুল থেকে শিক্ষা নিয়ে সামনে তাকাতে চেয়েছেন ঋষভ। চরৈবেতির যুদ্ধে টিম ইন্ডিয়ার অধিনায়ক বিরাট কোহলি ও রোহিত শর্মাকে পাশে পেয়েছেন বরাবরই। নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে ওয়ার্ল্ড টেস্ট চ্যাম্পিয়ানশিপ ফাইনালে হারের পর ঋষভের ব্যাটিং নিয়ে তুমুল সমালোচনা হয়েছিল। সেই ভুল শুধরে ৪ অগাস্ট থেকে জো রুটদের বিরুদ্ধে শুরু হতে চলা টেস্টে নয়া শুরুর অপেক্ষায় টিম ইন্ডিয়ার উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান।

- Advertisement -

আবার সেই ট্রেন্ট ব্রিজ। নটিংহ্যামেই নয়া শুরুর লক্ষ্যে বুঁদ ঋষভ। বিসিসিআইয়ের ওয়েবসাইটে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, কেরিয়ারে অনেক ওঠাপড়া দেখেছি। ক্রিকেটার হিসেবে সবসময় ভুল থেকে শিক্ষা নিতে চেয়েছি। মাঠে আরও ভাল পারফর্ম করার পাশে উন্নতি করতে চেয়েছি নিজের খেলার। এবারও সেই লক্ষ্য নিয়ে নটিংহ্যামে নামব। তাঁর কথায়, টেস্ট ক্যাপ পাওয়া আমার কাছে স্পেশাল অভিজ্ঞতা। তখন আমার বয়স ১৯ বা ২০। নটিংহ্যামে অভিষেক টেস্ট আর সেই সিরিজে ওভালে শতরান পাওয়ার অভিজ্ঞতা জীবনে ভুলব না।

সম্প্রতি করোনাকে হারিয়ে সুস্থ হয়ে কোহলির সংসারে ঢুকে পড়েছেন ঋষভ। রুটদের বিরুদ্ধে প্রথম টেস্ট শুরুর অপেক্ষায় দিন গুনছেন তিনি। এদিকে, আজ রাতের দিকে কলম্বো থেকেই লন্ডন উড়ে যাওয়ার কথা পৃথ্বী শ ও সূর্যকুমার যাদবের। তিনটি করোনা পরীক্ষার রিপোর্টই নেগেটিভ তাঁদের। যদিও বোর্ডের তরফে রাত পর্যন্ত তাঁদের ইংল্যান্ড যাত্রা নিয়ে কোনও আপডেট দেওয়া হয়নি।