কোহলিকে নিয়ে মাইন্ডগেম টার্নারের

লন্ডন : চলতি বিলেত সফরের প্রথম পরীক্ষায় সফল নিউজিল্যান্ড।

ইংল্যান্ডকে হারাতে না পারলেও লর্ডস টেস্টে আধিপত্য দেখিয়েছে উইলিয়ামসন ব্রিগেড। ভারতের জন্য নিঃসন্দেহে যা বড়ো বার্তাও। শুধু বাইশ গজের পারফরম্যান্সেই নয়, মাঠের বাইরেও বিরাটদের বিরুদ্ধে মাইন্ড গেম শুরু করল কিউয়ি শিবির।

- Advertisement -

মনস্তাত্বিক যে যুদ্ধে ব্যাট ধরলেন কিউয়ি নির্বাচক কমিটির প্রধান গ্লেন টার্নার। নিউজিল্যান্ডের প্রাক্তন অধিনায়কের দাবি, সাদাম্পটনের উইকেটে সুইং, সিম মুভমেন্ট দুটো থাকলে ভারত বড়ো সমস্যায় পড়বে। টার্নাটরের মূল টার্গেট অবশ্য বিরাট কোহলি। ১৮ জুন শুরু ওয়ার্ল্ড টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ ফাইনাল প্রসঙ্গে টার্নারের যুক্তি, আদ্র আবহাওয়াতে সুইং মোকাবিলায় কোহলি কতটা সমস্যা পড়ে, তা নতুন করে অনুমানের প্রয়োজন নেই। গত নিউজিল্যান্ড সফরে কিংবা অতীতে ইংল্যান্ডে যা বারবার সামনে চলে এসেছে।

টার্নার অবশ্য মানছেন প্রতিটি ব্যাটসম্যানদের জন্য বড়ো পরীক্ষা হতে চলেছে। তবে কিউয়ি নির্বাচক কমিটির প্রধানের বিশ্বাস, ভারতের তুলনায় পরিস্থিতির সঙ্গে মানিয়ে নেওয়ার ক্ষেত্রে এগিয়ে থাকবে তার দেশই। টার্নারের দাবি, কোহলিই শুধু নয়, সাদাম্পটনের পিচে বল সুইং করলে আমাদের ব্যাটসম্যানদেরও পরীক্ষা দিতে হবে। তবে বাস্তব হল, কোহলিকে যদি চাপে রাখা যায়, আমরাই এগিয়ে থাকব। এব্যাপারে নতুন করে বলার কোনও প্রয়োজন নেই।

বন্ধু বিরাট সম্পর্কে অবশ্য কেন উইলিয়ামস ইতিবাচক। নির্বাচক কমিটির প্রধান যখন কোহলির বিরুদ্ধে মাইন্ডগেমে নেতৃত্ব দিচ্ছেন, তখন দলনায়কের গলায় বন্ধুত্বের সুর। ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে প্রথম টেস্টে দাপট দেখানোর পর জানিয়ে দিলেন, বিরাটের বিরুদ্ধে নিরপেক্ষ মাঠে নামার জন্য ছটফট করছেন। উইলিয়ামসন বলেন, বহু বছর ধরে পরস্পরের বিরুদ্ধে খেলছি আমরা। ভালোভাবে জানি একে অপরকে। তাই বিরাটের বিরুদ্ধে ফাইনালে নামার জন্য মুখিয়ে রয়েছি।