সোনার দোকানে চুরি, গ্রেপ্তার ১

106

কিশনগঞ্জ: গয়নার দোকানে চুরির ঘটনায় জড়িত অভিযোগে এক দুষ্কৃতীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, ধৃতের নাম মহম্মদ ইফতেকার আলমকে। গত ১ মার্চ ঠাকুরগঞ্জ বাজারের সোনা রূপার ও বন্ধকী কারবারী সত্য নারায়ণ আগরওয়ালের দোকানে রাতে চুরি হয়। দুষ্কৃতীরা দোকানের গ্রিলের দরজার ৫টি তালা ভেঙে ভিতরে প্রবেশ করে। অভিযোগ, দুষ্কৃতীরা প্রায় ৫ কুইন্টাল ওজনের লোহার সিন্দুকে রাখা প্রচুর সোনা রূপার গয়না ও নগদ ৫ লাখ টাকা সিন্দুক সমেত চুরি করে পালিয়ে যায়। সত্য নারায়ণবাবু ঠাকুরগঞ্জ থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। ঘটনার তদন্তে পুলিশ প্রথমে জেলার কাটাহল বাড়ি দেরমারী গ্রামের কাছে মহানন্দা নদীর তীরে গত ৪ মার্চ পরিত্যক্ত ভাঙা সিন্দুকটি উদ্ধার করে। এরপরই পুলিশের তদন্তে বেশ কয়েকজন সন্দেহভাজন দুষ্কৃতীর নাম উঠে আসে।

সোমবার সকালে পুলিশের টাস্ক ফোর্স মহম্মদ ইফতেকার আলমকে চুরির বেশ কিছু সামগ্রী সহ গ্রেপ্তার করে। পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে ধৃত আরও বেশ কয়েকজন দুষ্কৃতীদের নাম প্রকাশ করে। ধৃতের কাছ থেকে একটি সোনার হার, দুটি সোনার কানের দুল, একটি সোনার তাবিজ, দুটি রূপার চেন বা গলার হার, তিনটি রূপার চুরি উদ্ধার করেছে। চুরির মালের ভাগাভাগিতে সে এই সব অলঙ্কার পেয়েছে বলে ধৃত পুলিশকে জানায়।মহকুমা পুলিশ আধিকারিক আনোয়ার জাবেদ আনসারি বলেন, ‘চুরির ঘটনায় জড়িত সন্দেহে অন্য দুষ্কৃতীদের গ্রেপ্তারের জন্য পুলিশ চিরুনি তল্লাশি শুরু করেছে।’ ধৃতকে আদালতের নির্দেশে ১৪ দিনের বিচারবিভাগীয় হেপাজতে কিশনগঞ্জ জেলে পাঠানো হয়েছে।

- Advertisement -