দার্জিলিং পৌঁছোলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়

443

দার্জিলিং: দার্জিলিং পৌঁছোলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়। রবিবার দুপুরে তিনি সস্ত্রীক দার্জিলিংয়ের রাজভবনে পৌঁছোন। ৩০ নভেম্বর পর্যন্ত তিনি সেখানেই থাকবেন। পাহাড়ে থাকাকালীন তিনি বিভিন্ন রাজনৈতিক দল, সংগঠন, বুদ্ধিজীবীদের সঙ্গে রাজভবনে বৈঠক করবেন। এদিন দার্জিলিং পৌঁছোনোর পর রাজভবনের সামনে রাজ্যপালকে গার্ড অফ অনার দেওয়া হয়।

কয়েকদিন আগেই কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রীর সঙ্গে দিল্লিতে পশ্চিমবঙ্গের আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে দীর্ঘ বৈঠক করেছেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়। তারপরই তিনি উত্তরবঙ্গে এলেন।

- Advertisement -

শনিবার কাঞ্চনজঙ্ঘা এক্সপ্রেসে দার্জিলিং যাওয়ার পথে মালদায় ট্রেনের মধ্যেই বিজেপি নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করেন রাজ্যপাল। যদিও বিজেপি সাংসদ খগেন মুর্মু তিনি জানিয়েছিলেন, এটি নিতান্তই সৌজন্যমূলক সাক্ষাৎকার।

দার্জিলিং যাওয়ার পথে মালদায় সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে শনিবার রাজ্য সরকারকে তীব্র কটাক্ষ করেন রাজ্যপাল। রাজ্যের আইন শৃঙ্খলা নিয়ে প্রশ্নও তোলেন তিনি। পরে কাঞ্চনজঙ্ঘা এক্সপ্রেসে উত্তর মালদার সাংসদ খগেন মুর্মু এবং বৈষ্ণবনগরের বিজেপি বিধায়ক স্বাধীন সরকারের সঙ্গে বেশ কিছুক্ষণ কথাও বলেন রাজ্যপাল।

এদিকে, দীর্ঘদিন আত্মগোপন করে থাকার পর সম্প্রতি প্রকাশ্যে এসেছেন গোর্খা জনমুক্তি মোর্চা সুপ্রিমো বিমল গুরুং। তিনি তৃণমূলকে সমর্থনের কথা জানিয়েছেন। তারপর থেকেই পাহাড়ের পরিস্থিতি ফের উত্তপ্ত হয়ে উঠতে শুরু করেছে।

পাহাড়ে বিমল গুরুংয়ের বিরোধিতায় নেমেছেন বিনয় তামাং ও অমিত থাপার অনুগামীরা। শনিবারও কার্সিয়াংয়ে বিমল গুরুং বিরোধী মিছিল হয়েছে। মিছিলে ‘গো ব্যাক’ স্লোগান তোলা হয়। পাহাড়ের রাজনৈতিক সমীকরণও জটিল হচ্ছে। এরই মধ্যে রাজ্যপালের দার্জিলিং সফর যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে করছে রাজনৈতিক ওয়াকিবহাল মহল।