মন্দিরে পুজো দিতে গিয়ে রাজনৈতিক হিংসা প্রসঙ্গে টিপ্পনী রাজ্যপালের

150

বর্ধমান: মন্দিরে পুজো দিতে গিয়ে রাজনৈতিক হিংসা প্রসঙ্গে টিপ্পনী রাজ্যপাল জগদীপ ধনকরের। সোমবার রাজ্যপাল সস্ত্রীক পুজো দিতে যান বর্ধমানের সর্বমঙ্গলা মন্দিরে। সেখানে ইতিহাস প্রসিদ্ধ ১০৮টি শিব মন্দির রয়েছে। রাজ্যপাল ও তাঁর স্ত্রী সুদেশ ধনকর শিব মন্দিরে পুজো করেন।

পুজো শেষে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে রাজ্যপাল জগদীপ ধনকর বলেন, ‘আজকের দিনটা আমার ও আমার স্ত্রীর কাছে উল্লেখযোগ্য দিন। ঐতিহাসিক শিব মন্দিরে পুজো দিলাম। আমি ও আমার স্ত্রী শিব মন্দিরে বসেই পুজো-অর্চনা করেছি। প্রার্থনা করেছি ২০২১ পশ্চিমবঙ্গের জনগণের জন্য যেন শান্তি ও সুখের হয়। বাংলা হিংসা থেকে যেন দূরে থাকে।’ পাশাপাশি রাজ্যপাল বলেন, ‘এই বছরটা পশ্চিমবঙ্গে ভোটের বছর। তাই আমি মন্দিরে প্রার্থনা করেছি, এতদিন পশ্চিমবঙ্গে যে ছবি ছিল, সেই হিংসা আর যেন কোনও স্থান না হয়। কারও প্রতি আমরা যেন রাগ বিদ্বেষ না রাখি। সবাই ভারতের একতায় যেন বিশ্বাস করি। আমরা সবাই ভারত মাতার সেবক। আমাদের দেশ এক। পশ্চিমবঙ্গের সংস্কৃতির প্রকাশ দেশ ও দুনিয়া জুড়ে ছড়িয়ে রয়েছে। সেই প্রকাশ বাংলাতেও বজায় থাকুক।’

- Advertisement -