এবার চাঁচলেও হবে সরকারি বইমেলা, ঘোষণা সিদ্দিকুল্লাহ চৌধুরীর

229

চাঁচল: এবার চাঁচলেও হবে সরকারি বইমেলা। চাঁচলের কেষ্টগঞ্জে এক অনুষ্ঠানে এমনটাই ঘোষণা করলেন রাজ্যের গ্রন্থাগার দপ্তরের প্রতিমন্ত্রী সিদ্দিকুল্লাহ চৌধুরী। তিনি বলেন, ‘সময় নির্ধারিত হয়নি। তবে ফেব্রুয়ারি মাসের প্রথম সপ্তাহে মহকুমায় একটি সরকারি বইমেলা অনুষ্ঠিত হবে। সরকারি অনুদানে হবে বইমেলা।’ এলাকায় সাম্প্রদায়িক শক্তি যাতে মাথা চাড়া দিতে না পারে তারজন্য সকলকে অনুরোধ করেন তিনি।

মন্ত্রীর ঘোষণার পর এমন সু-সংবাদ পেয়ে খুশি চাঁচল মহকুমার বইপ্রেমী সহ সাধারণ মানুষ। যদিও করোনা আবহে স্বাস্থ্য সুরক্ষা বিধি মেনেই হবে বইমেলা।

- Advertisement -

মন্ত্রী সিদ্দিকুল্লাহ চৌধুরী ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন প্রেমানন্দ মহারাজ, শাসকদলের জেলা চেয়ারম্যান ডঃ মোয়াজ্জেম হোসেন, জেলা সংখ্যালঘু সেলের সভাপতি মুসারফ হোসেন, জেলা পরিষদের কৃষি কর্মাধ্যক্ষ এটিএম রফিকুল হোসেন, টিএমসি চাঁচল-২ ও রতুয়া-২ ব্লকের সভাপতি যথাক্রমে হবিবুর রহমান মুখিয়া ও নৈমুদ্দিন আহমেদ সহ আরও অনেকে।

চাঁচল সিদ্ধেশ্বরী স্কুলের সহ শিক্ষক তথা বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ পার্থ চক্রবর্তী বলেন, ‘ইন্টারনেটের এমনিতেই অনেক তথ্য পাওয়া যায়। কিন্তু হাতে বই পড়ার মজাই আলাদা। বইমেলায় পড়ুয়া সহ শিক্ষক-শিক্ষিকাদের মধ্যে শিক্ষাক্ষেত্রে মেলবন্ধন গড়ে ওঠে। তবে করোনা আবহে সুরক্ষা বিধি নিয়ে নানান প্রশ্ন উঠেছে বিভিন্ন কর্মসূচিতে। জল্পনার অবসান কাটিয়ে উত্তর মালদার চাঁচল মহকুমায় এবার বইমেলা অনুষ্ঠিত হবে। এতে আমরা ভীষণই খুশি।’

প্রসঙ্গত, গত বছর চাঁচল সিদ্ধেশ্বরী ইনস্টিটিউশন মাঠে শুরু হয়েছিল ১৮তম ‘উত্তর মালদা বইমেলা’ উৎসব। প্রতিবছর উত্তর মালদা বইমেলা কমিটির উদ‍্যোগেই হয়ে এসেছে চাঁচলের বইমেলা। করোনায় যেন সব বেরঙিন হয়ে এসেছে। মহামারী প্রাক্কালে এবার হবে কি বইমেলা, সেই প্রশ্নই ঘুরপাক খাচ্ছিল চাঁচল মহকুমার বইপ্রেমীদের মধ‍্যে। গতকালের মন্ত্রীর ঘোষণায় অনেকটাই অক্সিজেন পেল চাঁচল মহকুমার বইপ্রেমীরা।