তিরুবনন্তপুরম, ১৯ অক্টোবরঃ তৃতীয় দিনেও হল না আয়াপ্পাস্বামীর মন্দিরে ঢোকা। শবরীমালা থেকে ফিরলেন মহিলা সাংবাদিক কবিতা জাক্কাল এবং সমাজকর্মী রেহানা ফতিমা। মন্দিরের মূল গর্ভগৃহে ঢোকার ১৮টি সিঁড়ি আগে বসে পড়েন পুরোহিতরা। স্লোগান দেন, যদি কোনও মহিলা ওই শেষ সিঁড়িগুলি চড়েন তাহলে তাঁরা পুজো বন্ধ করে দেবেন। মন্দিরের দায়িত্বে থাকা দেবস্বম বোর্ডের মন্ত্রী কাডাকামপল্লী সুরেন্দ্রণ বলেন, যদি কোনও সত্যি মহিলা ভক্ত মন্দিরে ঢুকতে চান তাঁরা বাধা দেবেন না। কিন্তু কোনও সমাজকর্মীকে তাঁদের সাফল্য প্রমাণের বস্তু হিসেবে মন্দিরে প্রবেশ করতে দেওয়া হবে না।

প্রধান পুরোহিত কান্ডারু রাজীবারু বলেন, তাঁরা সিদ্ধান্ত নিয়েছেন, যদি মহিলারা মন্দিরে প্রবেশ করেন তাহলে তাঁরা মন্দিরের দরজায় তালা লাগিয়ে চলে যাবেন। কারণ তাঁদের কাছে আর কোনও বিকল্প পথ নেই ভক্তদের সঙ্গে থাকা ছাড়া। পরে ফেরার সিদ্ধান্ত নেন কবিতা এবং রেহানা। এই ঘটনাকে ধর্মীয় দুর্যোগ বলে মন্তব্য করেছেন আইজি।