বিশ্বে প্রথমবার! অপরাধীদের শরীরে GPS বসানোর সিদ্ধান্ত

437

লন্ডন: প্রযুক্তির এই যুগে অভিনব নানান উদ্ভাবনার সাক্ষী গোটা বিশ্ব। আর এই প্রথম কোনও দেশ অপরাধীদের শরীরে জিপিএস (GPS) ট্যাগ বসানোর পরিকল্পনা করেছে, যাতে দ্বিতীয়বার অপরাধ করার থেকে সেই অপরাধীকে আটকানো যেতে পারে। তাই এবার অপরাধীদের শায়েস্তা করতে তাদের শরীরে জিপিএস (GPS) ফিট করার পরিকল্পনা করেছে ব্রিটেনের প্রশাসন। সেদেশের প্রশাসন জানিয়েছে, অনেক সময় জেল থেকে মুক্তি পাওয়ার পর ফের অপরাধের দুনিয়ায় ফিরে যায় অপরাধীরা। প্রায় সঙ্গে সঙ্গেই শুরু হয়ে যায় দ্বিতীয়বার অপরাধের প্রবণতা। তাই ঠিক করা হয়েছে, এক বছর বা তার থেকে বেশি সময় সংশোধনাগারে কাটানোর পর ছাড়া পাওয়া কোনও অপরাধীর শরীরে এই জিপিএস (GPS) ট্যাগ ফিট করানো হবে। তারপর পুলিশ প্রশাসন রাতদিন তার ওপর নজরদারি চালাবে।

ব্রিটেন সরকার জানিয়েছে, চুরি, কেপমারি, ছিনতাইয়ের মতো ঘটনার সঙ্গে জড়িত অপরাধীরা এক-আধ বছর সাজা কাটিয়ে মুক্তি পেতেই ফের অপরাধ জগতে ঢুকে পড়ে। এমনকী প্রথমবার সাজা পাওয়ার পর বেশিরভাগ অপরাধী বেশি সতর্ক হয়ে যায়। ফলে তাদের আবার চিহ্নিত করে পাকড়াও করা পুলিশের পক্ষে অসাধ্য হয়ে ওঠে। ৮০ শতাংশ মামলায় সন্দেহভাজনকে খুঁজে বের করতে পারে না পুলিশ। তবে জিপিএস (GPS) ট্র্যাক করলে অপরাধীদের গতিবিধির ওপর নজরদারি চালাতে সুবিধা হবে।

- Advertisement -

এমনকি অপরাধী যদি কোনও কাণ্ড ঘটিয়ে বসে তাহলে তাকে দ্রুত গ্রেপ্তার করা যাবে। কারণ জিপিএস (GPS)-এর মাধ্যমে পুলিশের তাকে খুঁজে পেতে সুবিধা হবে। চুরি-ডাকাতি, হত্যার মতো অপরাধ কমানোর ক্ষেত্রে এই উদ্যোগ কার্যকরী হতে পারে বলে মনে করছেন তিনি। এখনও পর্যন্ত বিশ্বের কোনও দেশ এমন উদ্যোগ নেয়নি।