জল অপচয় করলে শাস্তিযোগ্য অপরাধ, হবে জেল-জরিমানা

794

নয়াদিল্লি: জল অপচয় করলে এবার থেকে তা শাস্তিযোগ্য অপরাধ বলে ঘোষিত হবে। সেন্ট্রাল গ্রাউন্ড ওয়াটার অথরিটির তরফে এই নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে। সংস্থার তরফে বলা হয়েছে, ভূগর্ভস্থ ও পানীয় জলের অপব্যবহারকে শাস্তিযোগ্য অপরাধ বলে সরকারি ভাবে সিদ্ধান্ত নেওয়া হল। ইতিমধ্যেই দেশের প্রতিটি পুর সংস্থাকে নির্দিষ্ট আইন রূপায়ন করে দ্রুত কার্যকর করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

আমাদের রাজ্য তো বটেই, ভারতের বহু অংশে ঘন্টার পর ঘন্টা জলের নানান উৎস থেকে জল নষ্ট হতে দেখা যায়। আবার কোথাও একবিন্দু জল পেতে অমানসিক পরিশ্রম করতে হয়। তাই জল অপচয় রোধ করতে সেন্ট্রাল গ্রাউন্ড ওয়াটার অথরিটির নির্দেশিকায় স্পষ্ট বলা হয়েছে, দেশের কোথাও দৈনন্দিন ব্যবহারযোগ্য জল অপচয় হলে তা শাস্তিযোগ্য অবরাধ বলে ধরা হবে। জল অপচয়কারীকে একই সঙ্গে ৫ বছরের জেল ও ১ লাখ টাকা পর্যন্ত জরিমানা দিতে হতে পারে। এরপরেও যদি নিয়ম না মানা হয়, তবে প্রতিদিন অপরাধকারীর ওপর ৫,০০০ টাকা করে জরিমানা বসতে পারে। ২০১৯-এ ন্যাশনাল গ্রিন ট্রাইবুন্যালের নির্দেশ মেনে এই নির্দেশিকা জারি করেছে সেন্ট্রাল গ্রাউন্ড ওয়াটার অথরিটি। এই মর্মে একটি জনস্বার্থ মামলাও রুজু করা হয়।

- Advertisement -

জনস্বার্থ মামলায় দাবি করা হয়েছে, জল নষ্ট ও অপব্যবহার করাকে শাস্তিযোগ্য অপরাধ হিসেবে চিহ্নিত করতে হবে। এরপরই গ্রিন ট্রাইবুন্যালের তরফে নির্দেশিকা জারি হতেই সেন্ট্রাল গ্রাউন্ড ওয়াটার অথরিটি বলেছে, জল বোর্ড হোক, বা জল নিগম, সব কটি রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে জল সরবরাহ নিয়ে কাজ করা পুর সংস্থাগুলি নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে নিশ্চিত করবে, তাদের এলাকায় পানীয় জল বা ভূগর্ভস্থ জলের কোনওরকম অপব্যবহার হয় না।