১১ই মার্চ, ফালাকাটাঃ সম্প্রতি রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় প্রাথমিক বিদ্যালয় গুলিতে বদলির নির্দেশিকা চালু হয়েছে। আলিপুরদুয়ার জেলাতেও কিছু শিক্ষকদের অন্যত্র বদলির সিদ্ধান্ত নিয়েছে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা সংসদ। এবার ফালাকাটা ব্লকের শিবনাথপুর বিএফপি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের এক শিক্ষক সৌরভ দত্ত-র বদলির খবর ছড়িয়ে পড়তে সোমবার ছাত্রছাত্রীদের অভিভাবক-অভিভাবিকারা শিক্ষকদের তালাবন্দি করে স্কুল ঘেরাও করে প্রতিবাদ জানান।

জানা গিয়েছে, ওই শিক্ষক এই স্কুলে ২০১০ সাল থেকে শিক্ষকতা করছেন। তিনি জানান, হাতে বদলির চিঠি না পেলেও ফোনে বদলির কথা জানিয়েছেন ফালাকাটা সার্কেলের এসআই। ফালাকাটা থেকে মুর্শিদাবাদ জেলায় তাকে বদলি করা হচ্ছে বলে জানান সৌরভবাবু। পরিস্থিতি দেখতে এসে ফালাকাটা সার্কেলের এসআই রাজা ভৌমিকও অভিভাবক অভিভাবিকাদের ক্ষোভের মুখে পড়েন। এক অভিভাবক পরিতোষ রায় বলেন, ‘বর্তমানে স্কুলে ছাত্রছাত্রী সংখ্যা ১৩২, স্থায়ী শিক্ষক সংখ্যা ৩ জন, যেখানে সরকারি মতে ৫ জন শিক্ষকের প্রয়োজন। গত ফেব্রুয়ারি মাসে একজন শিক্ষক যোগদান করেন কিন্তু অজ্ঞাত কারণে তাকেও বদলি করা হয় অন্যত্র। এবার সহকারী শিক্ষক সৌরভ দত্তকেও বদলির করা হলে শিক্ষক থাকবেন মাত্র দুজন। এতে পঠনপাঠন ব্যাহত হবে। এর প্রতিবাদেই আমরা আজ স্কুল ঘেরাও করতে বাধ্য হয়েছি।’ এসআই রাজা ভৌমিক বলেন, ‘আমি উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার দায়িত্বে ব্যস্ত ছিলাম। স্কুল ঘেরাও-এর খবর শুনে পরীক্ষা শেষ করে ছুটে আসি। শিক্ষক বদলির প্রতিবাদে অভিভাবকা-অভিভাবিকারা ডেপুটেশন জমা দিয়েছেন। বিষয়টি উচ্চতর কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছি।’ স্কুলের ভারপ্রাপ্ত শিক্ষক গোলাম মোস্তফা বলেন, ‘শিক্ষক বদলির প্রতিবাদে সোমবার সকাল এগারোটা থেকেই স্কুলে তালা বন্ধ করে রাখেন অভিভাবক-অভিভাবিকারা। পরে এসআই সাহেব বিষয়টি দেখার আশ্বাস দিলে বিকেল চারটা নাগাদ ঘেরাও তুলে নেওয়া হয়।’ তবে শিক্ষক বদলির সিদ্ধান্তে বদল না আনা হলে আগামীদিনে পড়ুয়াদের এই স্কুল থেকে অন্যত্র সরিয়ে নিয়ে যাবার কথা জানিয়েছেন ক্ষুব্ধ অভিভাবক-অভিভাবিকারা।

সংবাদদাতাঃ সব্যসাচী ঘোষ