স্যাক্ট লাগুর দাবিতে রিলে অনশনে অতিথি অধ্যাপকরা

193

রায়গঞ্জ: রায়গঞ্জ বিশ্ববিদ্যালয়ের ২৪ জন অতিথি অধ্যাপক স্যাক্ট লাগু করার দাবিতে সোমবার থেকে রিলে অনশনে বসলেন। গত ডিসেম্বর মাসেও তাঁরা একই দাবিতে ১৮ দিন অবস্থান বিক্ষোভ করেছিলেন। বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ এক মাসের মধ্যে তাদের সমস্যা সমাধানের আশ্বাস দিলে তাঁরা আন্দোলন তুলে নেন। কিন্তু এক মাস পরেও প্রতিশ্রুতি পূরণ না হওয়ায় এদিন থেকে উপাচার্যের চেম্বারের সামনে আবার ধর্নায় বসলেন তাঁরা। তাদের অভিযোগ, বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের গাফিলতির কারণে তাঁরা ন্যায্য অধিকার থেকে বঞ্চিত।

স্যাক্টের আওতায় তাঁরা আসেননি। অথচ আংশিক সময়ের ও চুক্তিভিত্তিক অধ্যাপকদের স্যাক্টের আওতায় নিয়ে আসা হয়েছে। তাই যতদিন না পর্যন্ত তাদের দাবি পূরণ হচ্ছে তাঁরা রিলে অনশন চালিয়ে যাবেন। এদিন আন্দোলনরত অধ্যাপকদের নিয়ে জরুরি মিটিংয়ে বসেন উপাচার্য, রেজিস্টার সহ আধিকারিকেরা। অধ্যাপক সংগঠনের সভাপতি রাগিব আলি মিনহাজ জানান, চুক্তিভিত্তিক ও আংশিক সময়ের অধ্যাপকেরা স্যাক্টের সুবিধা পাচ্ছেন অথচ তাঁরা পাচ্ছেন না। তাই অনির্দিষ্টকালের জন্য রিলে অনশনে বসেছেন।

- Advertisement -

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অনিল ভুইঁমালি বলেন, ‘সম্প্রতি রাজ্যের কলেজগুলিতে স্যাক্ট কার্যকর হয়েছে। যেহেতু রায়গঞ্জ বিশ্ববিদ্যালয় তাই সে কারণে অতিথি অধ্যাপকেরা স্যাক্টের আওতায় আসেননি। এদের দাবির কথা কাউন্সিলের মাধ্যমে আমরা রাজ্য সরকারকে জানিয়েছি। বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এক প্রতিনিধি দল গিয়ে উচ্চশিক্ষা দপ্তরের আধিকারিকদের সঙ্গে দেখা করেছেন। তাদের দাবি দাওয়া গুলি বিবেচনাধীন। এখনও উচ্চশিক্ষা দপ্তর থেকে কোনও সিদ্ধান্ত জানানো হয়নি।