কর্তব্যে গাফিলতির অভিযোগ, মৃতদেহ চলে গেল অন্য পরিবারের হাতে

287
প্রতীকী

গান্ধিনগর: হাসপাতালের গাফিলতির অভিযোগে মর্গে রাখা মৃতদেহ চলে গেল অন্য পরিবারের হাতে। আহমেদাবাদের একটি হাসপাতালের ঘটনা।

জানা গিয়েছে, মৃতার নাম লেখাবেন চাঁদ (৬৫)। তাঁর ছেলে থাকেন কানাডায়। ফলে পরিবারের অন্য সদস্যরা মৃতদেহটি মর্গে রাখার সিদ্ধান্ত নেন। এরপরই গত ১১ নভেম্বর আহমেদাবাদের ওই হাসপাতালের মর্গে মৃতদেহটি রাখা হয়। কিন্তু গতকাল ওই পরিবারের তরফে মৃতদেহটি আনতে গিয়েই এই বিপত্তি বাঁধে। জানা যায়, হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের গাফিলতিতে মৃতদেহ অন্য পরিবারের হাতে চলে গিয়েছে। এমনকি তাঁরা ওই মহিলার সৎকারও করে ফেলেছেন। এর বদলে তাঁদের অন্য এক ব্যক্তির মৃতদেহ দেওয়া হয়। এরপরই ক্ষোভে ফেটে পড়েন মৃতার পরিবারের সদস্যরা।

- Advertisement -

এই প্রসঙ্গে ওই বৃদ্ধার ছেলে অমিত চাঁদ বলেন, ‘আমি মাকে শেষবার দেখার জন্য ৩৬‌ ঘণ্টা বিমান সফর করে ফিরলাম। কিন্তু এসে কেবল একজন ব্যক্তির মৃতদেহ দেখতে পেলাম। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ সমস্ত তথ্য হারিয়ে ফেলেছে।’ ওই হাসপাতালের বিরুদ্ধে অভিযোগ, সেখানকার মর্গে কোনও সিসিটিভি নেই। এমনকি মৃতদেহের রেকর্ডও ঠিকমতো রাখা হয়নি। সেকারণেই এই ঘটনা ঘটে। যদিও এই বিষয়ে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, মর্গে রাখা মৃতদেহ বদলে গিয়েছে। যাঁরা অন্য মৃতদেহটি নিয়ে গিয়েছিল, তাঁদের খুঁজে পাওয়া গিয়েছে। ঘটনায় ইতিমধ্যেই পুলিশে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। ঘটনার তদন্ত করছে পুলিশ।