গুরুগ্রাম, ১ ডিসেম্বরঃ নিজের তিন বছরের শিশুকন্যাকে ধর্ষণ করার অভিযোগে এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করল পুলিশ। শুক্রবার দুপুরে গুরুগ্রাম থেকে গ্রেফতার হয়েছে অভিযুক্তকে।

জানা গিয়েছে, বুধবার রাতে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে তুমুল বচসা হয়। এমনকি স্ত্রীর গায়ে হাতও তোলে স্বামী। এরপর রাগ করে স্ত্রী বাড়িতে মেয়েকে রেখে এক আত্মীয়ের বাড়ি চলে যান। বাড়িতে ছিল বাবা ও মেয়ে। পরের দিন সকালে তিনি ফিরে দেখেন মেয়ে অচৈতন্য অবস্থায় পড়ে রয়েছে বিছানায়। রক্তে ভেসে যাচ্ছে।

এরপর শিশুটিকে নিয়ে হাসপাতালে যায় তার মা। চিকিৎসকরা মেডিকেল পরীক্ষার পর যৌন নির্যাতনের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। শিশুটির অবস্থা গুরুতর ছিল বলে তাকে দিল্লির সফদরজং হাসপাতালে রেফার করা হয়েছে।

তদন্তকারী পুলিশ অফিসার সামশের সিং জানান, অভিযুক্ত নিজের ভুল স্বীকার করেছে। সে জানিয়েছে, সেদিন রাতে অতিরিক্ত মদ্যপান করেছিল এবং স্ত্রীর সঙ্গে বচসার পর স্ত্রীকে শিক্ষা দিতেই মেয়েকে যৌন নির্যাতন করে এবং তাকে খুন করারও চেষ্টা করেছিল সে। ঘটনাটি ঘটেছে সেক্টর ১০ এর সরস্বতী এনক্লেভে তাদের বাসভবনে। অভিযুক্ত ব্যক্তি উত্তরপ্রদেশের কাশগঞ্জ গ্রামের বাসিন্দা।

মহিলার অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ তার স্বামীর বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করে।
অভিযুক্তকে গতকাল পকসো আইনে গ্রেফতার করা হয়।