তৃণমূলের হলদিবাড়ি ব্লক সভাপতির নাম ঘোষণা

1039

হলদিবাড়ি: কোচবিহার জেলা কমিটির তরফে তৃণমূলের হলদিবাড়ির নতুন ব্লক কমিটির সভাপতির নাম ঘোষণা হতেই উচ্ছ্বসিত তৃণমূলীরা। নতুন কমিটি ঘোষণার একদিনের মধ্যেই পালটে যেতে শুরু করেছে দলের সাংগঠনিক চিত্র। দলের সর্বোচ্চ নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশে হলদিবাড়ি ব্লকের তৃণমূল কংগ্রেসের নতুন সভাপতি হিসেবে অমিতাভ বিশ্বাসের নাম ঘোষিত হয়েছে। অত্যন্ত স্বচ্ছ ভাবমূর্তি সম্পন্ন মিতভাষী অমিতাভবাবু দলের কর্মী থেকে বিরোধীদের কাছেও সমান জনপ্রিয়। রাজনৈতিক মহলের মতে বিধানসভা নির্বাচনের আগে হলদিবাড়ি ব্লকে বিজেপিকে আটকাতে অমিতাভবাবুকে সভাপতি করে মাস্টার স্ট্রোক দিয়েছে তৃণমূল। বিজেপির আগ্রাসন দমনে কফিনের প্রথম পেরেকটি গেঁথে দিল তৃণমূল।

তৃণমূলের হলদিবাড়ি ব্লক সভাপতির নাম ঘোষণা| Uttarbanga Sambad | Latest Bengali News | বাংলা সংবাদ, বাংলা খবর | Live Breaking News North Bengal | COVID-19 Latest Report From Northbengal West Bengal India
অমিতাভ বিশ্বাস

বর্তমানে দুর্নীতি নিয়ে চারিদিকে যখন তৃণমূলের নেতৃত্বদের বিরুদ্ধে মানুষের সীমাহীন ক্ষোভ। ঠিক এই সময়ে দাঁড়িয়েও নিজের অবস্থান থেকে বিন্দুমাত্র সরে আসেননি তৃণমূলের জন্মলগ্নের সৈনিক অমিতাভবাবু। বিরোধীদের প্রয়োজনে পাশে দাঁড়াতে দ্বিধাবোধ করেন না তিনি। মেখলিগঞ্জের বিধায়ক অর্ঘ্য রায় প্রধান ব্লক সভাপতির দায়িত্ব পাওয়ার পর রেলগেট সংলগ্ন এলাকার পূর্বের দলীয় কার্যালয়টি বন্ধ হয়ে যায়। নিজ বাসভবনে দলীয় কার্যালয় তৈরি করেন বিধায়ক। নতুন সভাপতি ঘোষণা হতেই পূর্বের বন্ধ হয়ে থাকা দলীয় কার্যালয়টি ধুয়ে মুছে সাফ করেন দলীয় কর্মীরা। বসে থাকা নিষ্ক্রিয় তৃণমূল নেতৃত্বরা সেখানে এসে তাঁকে সংবর্ধনা জানান।

- Advertisement -

দলীয় কর্মীদের একাংশের মতে, গত নির্বাচনে অর্ঘ্য রায় প্রধানকে ভোটে জেতানোর জন্য যেসব তৃণমূলীরা সামনের সারিতে থেকে নেতৃত্ব দেন। বিভিন্ন কারণে বিধায়কের সঙ্গে মতপার্থক্য জনিত কারণে নিষ্ক্রিয় হয়ে বসে যান। বিধায়কের নিজ বাসভবনে দলীয় কার্যালয় হওয়ায় সেমুখো হননি তাঁরা। এবার নতুন সভাপতি ও আগের দলীয় কার্যালয় খোলায় সেখানে সেইসব নেতৃত্বরা আসতে শুরু করেছেন বলে দাবি তাঁদের। বিধানসভা নির্বাচনের আগে নতুন সভাপতির নেতৃত্বে তাঁদের পুনরায় মূল স্রোতে ফিরিয়ে আনা সম্ভব হবে বলেও অভিমত তাঁদের।

এদিকে, তৃণমূলের ব্লক সভাপতির আসনে বসেই তৃণমূল কর্মীদের অমিতাভবাবু বার্তা দেন, ‘গোষ্ঠী কোন্দল ভুলে আপনারা আবার দলের কাজে নিযুক্ত হন। সকলকে যোগ্য মর্যাদা দেওয়া হবে। দলের ভীত মজবুত করা ও হলদিবাড়ির উন্নয়নকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়াই তাঁর মূল লক্ষ্য বলে জানান তিনি।