বরাত নেই হস্তশিল্পের, উৎসবের আবহেও আঁধারে শিল্পীরা

121

ময়নাগুড়ি: করোনা পরিস্থিতির জেরে বিপাকে পড়েছেন হস্তশিল্পীরা। হাতে তৈরি বিভিন্ন সামগ্রী বানিয়ে ডুয়ার্স সহ উত্তরবঙ্গের বিভিন্ন প্রান্ত জুড়ে যাঁরা ছুটে বেড়াতেন তাঁরাও আজ ঘরবন্দি। আয় নেই, তাই পুজোর আগে চরম সমস্যার মধ্যে দিন কাটাচ্ছেন এই শিল্পীরা। ময়নাগুড়ি ব্লকের আমগুড়ি গ্রামের বাসিন্দা সুরেশচন্দ্র রায় প্রায় পঞ্চাশ বছরেরও বেশি সময় ধরে কাঠের তৈরি বিভিন্ন সরঞ্জাম, মুখোশ, দেবদেবীর মূর্তি, মনীষীদের মূর্তি এবং কাঠ দিয়ে নানা সরঞ্জাম তৈরি করে চলেছেন। তবে গত বছর থেকে রীতিমতো মন্দা চলেছে এই শিল্পে। আগে বছরের অন্যান্য সময়ে নানা কর্মশালা ও মেলায় অংশ নিতেন সুরেশবাবু। কিন্তু বর্তমান পরিস্থিতি পালটে দিয়েছে সমস্ত কিছুই। প্রায় দু’বছর ধরে কোনও কাজ নেই তাঁর। দুর্গাপুজো আসতে বাকি আর মাত্র হাতে গোনা কয়েকটা দিন। প্রতি বছর বিভিন্ন পূজা কমিটি থেকে কাঠের দুর্গা প্রতিমার জন্য আলাদাভাবে বরাত পান। ডুয়ার্সের বিভিন্ন পূজা মণ্ডপে স্থান পায় তাঁর হাতে তৈরি কাঠের দুর্গা মূর্তি। কিন্তু চলতি বছর কোনও বরাত মেলেনি। তাই বাইরে যখন আগমনীর সুর, উৎবের প্রস্তুতিতে মাততে চলেছে গোটা বাংলা তখন সুরেশবাবুর ঘরে কেবলই আঁধার।