ধারের টাকা চাইতেই সহকর্মীর হাতে আক্রান্ত, অভিযোগ দায়ের থানায়

144

চাঁচল: চাঁচল হাসপাতালের এক অস্থায়ী কর্মীকে মারধরের অভিযোগ উঠল তাঁর সহকর্মীর বিরুদ্ধে। আহতের নাম মিঠুন আালি। বর্তমানে তিনি চাঁচল সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। এদিকে ঘটনার পরেই মিঠুনের পরিবারের তরফে সোমবার চাঁচল থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। অন্যদিকে, ঘটনার পর থেকেই পলাতক অভিযুক্তরা। অভিযোগের প্রেক্ষিতে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

পুলিশ ও পরিবার সূত্রে খবর, বছর সাতেক আগে মিঠুন আলির কাছ থেকে সাত লক্ষ টাকা ধার নিয়েছিল তার সহকর্মী মুক্তার আলি। একাধিকবার চেয়েও সেই টাকা ফেরত পাননি মিঠুন আলি। এনিয়েই উভয়ের মধ্যে বেশ কিছুদিন ধরেই বিবাদ চলছিল। অভিযোগ, রবিবার রাতে টাকা দেওয়ার নাম করে মিঠুনকে হাসপাতালের এক পাশে ফাঁকা জায়গায় ডেকে পাঠায় মুক্তার আলি। সেখানেই মিঠুনের ওপর চড়াও হয় মুক্তার আলি ও তার এক সঙ্গী খাইরুল আলম। মারধোর করার পাশাপাশি ধারালো অস্ত্র দিয়েও আঙ্গুলে আঘাত করা হয় বলে অভিযোগ। ঘটনায় গুরুতর জখম মিঠুনের চিৎকার শুনে হাসপাতালের অন্যান্য কর্মীরা ছুটে আসেন। যদিও ততক্ষণে ঘটনাস্থল ছেড়ে পালিয়ে যায় অভিযুক্তরা। অন্যদিকে, আহত মিঠুন আলিকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয় রাতেই। সেখানেই চিকিৎসাধীন রয়েছেন তিনি।

- Advertisement -

চাঁচল থানার আইসি সুকুমার ঘোষ বলেন, অভিযোগ দায়ের হয়েছে। ঘটনার তদন্ত চলছে।