ভারী বৃষ্টির সতর্কতা উত্তরের ৫ জেলায়, পার্বত্য এলাকায় ধসের আশঙ্কা

2458

কলকাতা: উত্তর ও দক্ষিণবঙ্গে ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস দিল আবহাওয়া দপ্তর। রবিবার নিম্নচাপ তৈরির প্রবল সম্ভাবনা বঙ্গোপসাগরে। এর প্রভাবে রবিবার থেকে বুধবার পর্যন্ত রাজ্যজুড়ে বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে বলে খবর। মৎস্যজীবীদের রবিবার বিকেলের মধ্যে গভীর সমুদ্র থেকে ফিরে আসার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। মঙ্গলবার পর্যন্ত মৎস্যজীবীদের সমুদ্রে যাওয়া নিষেধ। অতি বৃষ্টির কমলা সতর্কতা জারি রাজ্যে। এর ফলে নদীর জলস্তর বাড়ার আশঙ্কা রয়েছে। পার্বত্য এলাকায় ধসের সম্ভাবনা রয়েছে।

আবহাওয়া দপ্তর সূত্রে খবর, উত্তর-পূর্ব বঙ্গোপসাগরে তৈরি হবে নিম্নচাপ। এই নিম্নচাপ গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গের ওপর অবস্থান করবে। আগামী ২৪ ঘণ্টায় ক্রমশ সরে তা উত্তর-পশ্চিম বঙ্গোপসাগরে দিকে এগিয়ে যাবে। এর প্রভাবে ওডিশায় প্রবল বৃষ্টি হবে। ভারী বৃষ্টি হবে ঝাড়খণ্ড ও বিহারেও।

- Advertisement -

রবিবার সকাল থেকে মেঘাচ্ছন্ন কলকাতার আকাশ। বিকেলের দিকে কয়েক পশলা বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। সোমবার দক্ষিণবঙ্গে ও মঙ্গলবার উত্তরবঙ্গে অতিভারী বৃষ্টির কমলা সতর্কতা জারি করা হয়েছে। রবিবার দক্ষিণবঙ্গের পূর্ব মেদিনীপুর, উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনা, পূর্ব বর্ধমান, হাওড়া, হুগলি ও কলকাতা এই সাত জেলায় ভারী বৃষ্টির হলুদ সতর্কতা জারি করা হয়েছে। সোমবার দক্ষিণবঙ্গের সাত জেলায় অতিভারী বৃষ্টির কমলা সতর্কতা। বীরভূম, পূর্ব ও পশ্চিম বর্ধমান, বাঁকুড়া, পুরুলিয়া, পশ্চিম মেদিনীপুরের ঝাড়গ্রাম। কলকাতা সহ দক্ষিণবঙ্গের বাকি জেলাতেও বিক্ষিপ্তভাবে ভারী বৃষ্টি হতে পারে।

সোমবার উত্তরবঙ্গের পাঁচ জেলায় ভারী বৃষ্টির হলুদ সতর্কতা জারি করা হয়েছে। দার্জিলিং, কালিম্পং, জলপাইগুড়ি, কোচবিহার ও আলিপুরদুয়ারে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। মঙ্গলবার উত্তরবঙ্গে অতিভারী বৃষ্টির কমলা সতর্কতা। ২০০ মিলিমিটারের বেশি বৃষ্টি হতে পারে উত্তরবঙ্গের দুই জেলায়। দার্জিলিং ও আলিপুরদুয়ারে প্রবল বর্ষণের সতর্কতা। অতিভারী বৃষ্টি হবে জলপাইগুড়ি, কোচবিহার ও কালিম্পংয়ে। ভারী বৃষ্টির সর্তকতা মালদা, উত্তর ও দক্ষিণ দিনাজপুরেও।

আবহাওয়া দপ্তরের তরফে জানানো হয়েছে, দক্ষিণবঙ্গের পশ্চিমের জেলাগুলিতে ভারী বৃষ্টির হলুদ সতর্কতা। বীরভূম, পুরুলিয়া, বাঁকুড়া ও পশ্চিম বর্ধমানে বৃষ্টির সম্ভাবনা। বুধবারেও উত্তরবঙ্গের জেলাগুলিতে ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টির কমলা সতর্কতা জারি করা হয়েছে। রবিবার থেকে বুধবার পর্যন্ত এই প্রবল বৃষ্টির জেরে রাজ্যে নদীর জলস্তর বাড়তে পারে। বিশেষ করে উত্তরবঙ্গের নদীর জলস্তর বেশি বাড়ার আশঙ্কা। উত্তরবঙ্গের পার্বত্য এলাকায় রাস্তায় ধস নামার আশঙ্কা রয়েছে।