ভোট পরবর্তী হিংসায় রাজ্যের ওপর ক্ষুদ্ধ হাইকোর্ট

136
সংগৃহীত ছবি

কলকাতা: রাজ্যে ভোট পরবর্তী হিংসার পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে ফের কমিটি গঠনের নির্দেশ দিল কলকাতা হাইকোর্ট। জাতীয় মানবাধিকার কমিশনকে ওই কমিটি গঠনের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। কমিটিকে প্রয়োজনীয় সহযোগিতা করবে রাজ্য মানবাধিকার কমিশন। পরিস্থিতি খতিয়ে দেখে হাইকোর্টে রিপোর্ট জমা দেবে জাতীয় মানবাধিকার কমিশন। ভোট পরবর্তী হিংসার ঘটনায় কলকাতা হাইকোর্টের ৫ বিচারপতির বেঞ্চ এদিন রাজ্যের বিরুদ্ধে তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করেছে। ভোটের পর দীর্ঘ সময় পেরিয়ে গেলেও এখনও রাজনৈতিক হিংসার ঘটনা পুরোপুরি বন্ধ করা যায়নি বলে রাজ্যকে বিঁধেছে হাইকোর্ট।

বিচারপতি হরিশ ট্যাণ্ডন বলেন, ‘আপনারা বলছেন, পদক্ষেপ করা হয়েছে। কিন্তু কার বিরুদ্ধে পদক্ষেপ করা হয়েছে? পুলিশ ঠিক মতো কাজ করছে না।‘ তিনি বলেন, ‘রাজ্য স্বীকার না করলেও আমাদের কাছে যে অভিযোগ জমা পড়েছে, সেখান থেকে জানতে পেরেছি, রাজ্য হিংসার ঘটনা ঘটেছে।‘

- Advertisement -

জানা গিয়েছে, কেন্দ্রীয় মানবাধিকার কমিশন রাজ্যের বিভিন্ন এলাকা পরিদর্শন করে আদালতে রিপোর্ট পেশ করবে। তাতে সহায়তা করবে রাজ্য। অন্যথায় আদালত অবমাননার দায় নিতে হবে রাজ্যকে।

এর আগে ভোট পরবর্তী হিংসার কারণে ঘরছাড়াদের ঘরে ফেরাতে তিন সদস্যের কমিটি গঠন করেছিল কলকাতা হাইকোর্ট। তিন সদস্যের ওই কমিটিতে রয়েছে রাজ্য মানবাধিকার কমিশন, কেন্দ্রীয় মানবাধিকার কমিশন এবং রাজ্য লিগাল এইড সার্ভিস অথোরিটি। হিংসার কারণে যাঁরা ঘরে ফিরতে পারছেন না, তাঁদের ঘরে ফেরাতে ওই কমিটি গঠনের নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল। অনেককে ঘরে ফেরাতে সক্ষম হলেও বিভিন্ন ক্ষেত্রে কমিটিকে বাধার মুখে পড়তে হয়েছে বলে অভিযোগ।

এ ব্যাপারে মামলাকারী আইনজীবী প্রিয়াঙ্কা টিবরেওয়াল আদালতে জানান, অনেক জায়গায় আক্রান্তদের থেকে সাদা কাগজে ‘তাঁদের কোনও অভিযোগ নেই’-এই মর্মে স্বাক্ষর করিয়ে নেওয়া হয়েছে। পুলিশ অভিযোগ পেয়েও কোনও ব্যবস্থা নেয়নি। ৩০ জুন ফের এই মামলার শুনানি।