বামেদের নবান্ন অভিযান: মইদুল-দীপক ইস্যুতে তদন্ত রিপোর্ট তলব হাইকোর্টের

43
সংগৃহীত ছবি

কলকাতা: বামেদের নবান্ন অভিযানে মৃত বামকর্মী মইদুল ইসলাম মিদ্দার মৃত্যুতে কি তদন্ত করছে দময়ন্তী সেনের নেতৃত্বধীন সিট তা আগামী দু’সপ্তাহের মধ্যে কলকাতা হাইকোর্টকে জানানোর নির্দেশ দিলেন প্রধান বিচারপতি টিবিএন রাধাকৃষ্ণান ও বিচারপতি অরিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়ের ডিভিশন বেঞ্চ। পাশাপাশি নবান্ন অভিযানের পর থেকে নিখোঁজ বামকর্মী দীপক পাঁজার ব্যাপারে পুলিশ কি তদন্ত করেছে, আদৌও দীপক বেঁচে আছে নাকি মারা গেছেন! কলকাতার পুলিশ কমিশনারকে আগামী ১০ দিনের মধ্যে রিপোর্ট দিয়ে জানানোর নির্দেশ প্রাধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চের।

গত ১১ ফেব্রুয়ারি কলকাতায় ১০টি বামপন্থী ছাত্র-যুব সংগঠনের ডাকে নবান্ন অভিযান কর্মসূচিতে যোগ দিতে বাঁকুড়ার কোতুলপুর থেকে কলকাতায় গিয়েছিলেন মইদুল। ধর্মতলায় পুলিশের লাঠির আঘাতে গুরুতর আহত হয়েছিলেন তিনি। ১৫ ফেব্রুয়ারি সকালে মারা যান মইদুল। পরদিনই এই ঘটনার তদন্তে প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার দময়ন্তী সেনের নেতৃত্বে সিট গঠন করে রাজ্য সরকার। কিন্তু বিচারবিভাগীয় তদন্ত চেয়ে মামলা করা হয় বামেদের তরফে। পাশাপাশি পাঁশকুড়া থানার বাহারপোতা গ্রাম থেকে এসেছিলেন দীপক পাঁজা। কিন্তু তিনিও আর ঘরে ফেরেননি। এই দুই ঘটনায় আলাদা আলাদা মামলা দায়ের হয়েছিল হাইকোর্টে। সেই দুই মামলার প্রেক্ষিতেই এদিন এই নির্দেশ প্রাধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চের।

- Advertisement -