হিমাশ্রীদের অলিম্পিকের টিকিট পাওয়া নিয়ে প্রশ্ন

পাতিয়ালা : টোকিও অলিম্পিকের যোগ্যতা অর্জনের প্রতিযোগিতা বিশ্ব অ্যাথলেটিক্স রিলেতে ভারতের যোগ দেওয়া নিয়ে প্রশ্ন উঠছে। দেশের দুই তারকা দৌড়বিদ হিমা দাস ও দ্যুতি চাঁদের পাশাপাশি ধূপগুড়ির হিমাশ্রী রায়েরও ওই প্রতিযোগিতায় অংশ নেওয়ার কথা। ভারতে করোনা সংক্রমণ ছড়ানোর জেরে এদেশ থেকে যাতায়াতের উপর বিভিন্ন দেশ নিষেধাজ্ঞা জারি করায় দল পাঠানো নিয়ে সমস্যায় পড়েছে ভারতীয় অ্যাথলেটিক্স ফেডারেশন। প্রায় দুবছর পর আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতায় নামার সুযোগ হাতছাড়া হওয়ার আশঙ্কার পাশাপাশি অলিম্পিকের টিকিট পাওয়া নিয়ে উদ্বিগ্ন হিমাশ্রীরা।

১ ও ২ মে পোল্যান্ডের সিলেসিয়া শহরে বিশ্ব অ্যাথলেটিক্স রিলে হবে। হিমা-হিমাশ্রীদের ৪x১০০ মিটার রিলে দলের পাশাপাশি ছেলেদের ৪x৪০০ মিটার রিলে দলের ওই প্রতিযোগিতায় নামবে। প্রতিযোগিতার প্রথম আটে থাকলেই টোকিওর টিকিট পাওয়া যাবে। ভারত থেকে পোল্যান্ডের কোনও সরাসরি বিমান নেই। তাই নেদারল্যান্ডসের আমস্টারডাম হয়ে অ্যাথলিটদের সিলেসিয়া যাওয়ার ব্যবস্থা করেছিল ফেডারেশন। বুধবার দুটি দলের রওনা হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু করোনা সংক্রমণ ছড়ানোয় সোমবার ডাচ প্রশাসন ভারত থেকে যাতায়াতে নিষেধাজ্ঞা জারি করায় এই পথে পোল্যান্ড যেতে পারেননি হিমাশ্রীরা।

- Advertisement -

এই পরিস্থিতিতে উদ্বিগ্ন ধূপগুড়ির হিমাশ্রী। আপাতত পাতিয়ালার ক্যাম্পে রয়েছেন তাঁরা। সেখান থেকে ফোনে উত্তরবঙ্গ সংবাদকে বললেন, আমাদের বুধবার রওনা হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু নিষেধাজ্ঞার জেরে তা হয়নি। ফেডারেশনের কর্তারা বিকল্প ব্যবস্থা করার চেষ্টা করছেন। আমাদের তৈরি হয়ে থাকতে বলা হয়েছে। ২০১৯ সালের এপ্রিলে দোহায় শেষবার কোনও আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতায় দৌড়েছেন তাঁরা। ফলে সুযোগ হাতছাড়া হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে হিমাশ্রীদের। তিনি বলেন, অনেকদিন কোনও বড় প্রতিযোগিতায় নামার সুযোগ পাইনি। শুধু দেশেই অনুশীলন করেছি। ফলে এখন কী অবস্থায় আছি সেটাই বুঝতে পারছি না।

এরপর অলিম্পিকের টিকিট পাওয়ার মতো কোনও প্রতিযোগিতা নেই। এ প্রসঙ্গে হিমাশ্রী বললেন, আমরা কোনও লক্ষ্য ছাড়াই এক বছর অনুশীলন করছি। পরিশ্রম করার জন্য কোনও মোটিভেশন নেই আমাদের। পোল্যান্ডে যদি না যেতে পারি, তবে আমাদের বড় ক্ষতি হয়ে যাবে। এতদিনের পরিশ্রম জলে যাবে। পোল্যান্ডে গেলে হয়তো অলিম্পিকের যোগ্যতা অর্জন করে ফেলতাম। পরিস্থিতি এমন হবে ভাবতে পারিনি। অন্য খেলার ক্রীড়াবিদরা বিদেশে গিয়ে বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় অংশ নিচ্ছেন। কিন্তু নিজেদের সময়ে এমন সমস্যা হওয়ায় হতাশ হিমাশ্রী।

ফেডারশেন সূত্রে খবর, পোল্যান্ডে যাওয়ার সম্ভাবনা ক্রমেই কমছে। তবে এখনও কেন্দ্রীয় সরকার ও ইউরোপের বিভিন্ন দেশের দূতাবাসের সঙ্গে কথা বলে বিকল্প রাস্তার খোঁজ করা হচ্ছে। সেক্ষেত্রে ইউরোপের অন্য কোনও শহর ঘুরে পোল্যান্ড যাবেন হিমাশ্রীরা। হিমা, দ্যুতি ও হিমাশ্রী ছাড়াও এস ধনলক্ষ্মী, অর্চনা সুসেন্দ্রন এবং এটি ধনেশ্বরি মেয়েদের ৪x১০০ মিটার রিলে দলে আছেন।