কাশ্মীরে সেনার সঙ্গে গুলি বিনিময়ে খতম এক হিজবুল জঙ্গি

447
প্রতীকী

শ্রীনগর:সেনা-জঙ্গির গুলির লড়াইয়ে রবিবার এক হিজবুল মুজাহিদিন সদস্যের মৃত্যু হল জম্মু ও কাশ্মীরের দোদা জেলায়। দোদা শহর থেকে ২৬ কিলোমিটার দূরে গুন্ডানা এলাকার পোস্তা-পোত্রা গ্রামে হিজবুল মুজাহিদিন সদস্যের উপস্থিতির খবর পেয়ে যৌথ অভিযান চালায় সুরক্ষা বাহিনী। সেই অভিযানে দু’পক্ষের মধ্যে গুলি বিনিময় শুরু হয়। ভারতীয় সেনার এনকাউন্টারে খতম হয় এক হিজবুল সদস্য। একই সঙ্গে আটক করা হয় কয়েকজন হিজবুল সদস্যকে। তবে, আটক সন্ত্রাসীদের প্রাথমিক গুলিতে সেনাবাহিনীর এক জওয়ান গুরুতর আহত হন। হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে আহত জওয়ানের মৃত্যু হয় বলে সংবাদ সংস্থা পিটিআই সূত্রে খবর।

জম্মু জোনের ইন্সপেক্টর জেনারেল মুকেশ সিং বলেন, বন্দুক যুদ্ধের সময় লুকিয়ে থাকা সন্ত্রাসীদের এক জন নিহত হয়েছেন। বন্দুক যুদ্ধ এখনও চলছে। লুকিয়ে থাকা বাকি সন্ত্রাসবাদীকে পাকড়াও না করতে পারা পর্যন্ত অভিযান চলতে থাকবে বলে তিনি জানিয়েছেন।

- Advertisement -

এক সেনাকর্তা জানান, ওই গ্রামে দু’জন সন্দেহভাজন সন্ত্রাসীর উপস্থিতির খবর পেয়ে শনিবার রাতে সেনাবাহিনীর রাষ্ট্রীয় রাইফেলস, পুলিশ ও সিআরপিএফের যৌথ দল অভিযান শুরু করে। সুরক্ষা বাহিনীর সদস্যরা নিজেদের লক্ষ্যে পৌঁছতেই সকাল সাড়ে সাতটা নাগাদ তাঁদের লক্ষ্য করে গুলি বর্ষণ শুরু করে হিজব উল সদস্যরা। সংক্ষিপ্ত সংঘর্ষের পর সন্ত্রাসীরা একটি বাড়িতে আশ্রয় নিয়েছিল।

এ বছর দোদা জেলায় সুরক্ষা বাহিনী ও সন্ত্রাসীদের মধ্যে এটি দ্বিতীয় লড়াই। এর আগে, হিজবুল মুজাহিদিন কমান্ডার হারুন আব্বাস গত ১৫ জানুয়ারী একই এলাকায় নিরাপত্তা বাহিনীর হাতে নিহত হয়েছিল। এ মাসের শুরুতে জেলায় কয়েকটি অস্ত্র ও গোলাবারুদ সহ দু’জন হিজবুল মুজাহিদিন সন্ত্রাসীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল। নিকটবর্তী কিশোরদ্বার জেলা সহ দোদা ইদানীং সন্ত্রাসবাদী কার্যকলাপ বৃদ্ধি পেয়েছে। এক দশক আগে এই চেনাব উপত্যকা জেলাগুলি সন্ত্রাসমুক্ত ঘোষণা করা হয়েছিল।