Breaking News: কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ করোনা আক্রান্ত

528
ফাইল ছবি।

অনলাইন ডেস্ক: কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ করোনা আক্রান্ত। চিকিৎসকদের পরামর্শে হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন মন্ত্রী। অমিত শাহকে গুরুগ্রামের মেদন্ত হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আপাতত তিনি সুস্থই আছেন।

রবিবার বিকেল ৪টে ৪৩ নাগাদ নিজেই টুইট করে করোনা আক্রান্ত হওয়ার খবর প্রকাশ্যে আনেন অমিত শাহ। তিনি টুইটে লেখেন, করোনার প্রাথমিক লক্ষণগুলি প্রকাশ পাওয়ায় আমি লালা পরীক্ষা করিয়েছিলাম। সেই রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। আমি সুস্থ আছি। তবে চিকিৎসকদের পরামর্শে আমাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হচ্ছে। আপনারা যারা গত কয়েকদিনে আমার সংস্পর্শে এসেছেন তাঁরা নিজেদেরকে আইসোলেশনে রাখুন। লালা পরীক্ষাও করান।

- Advertisement -

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ গত সপ্তাহে মন্ত্রিসভার বৈঠকে যোগ দিয়েছিলেন। ওই বৈঠকে নতুন জাতীয় শিক্ষানীতি (এনইপি) পাস হয়েছিল। তবে অমিত শাহ সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সাথে সাক্ষাৎ করেছেন কিনা তা এখনও পরিষ্কার নয়।

করোনা বিরুদ্ধে লড়াইয়ে অমিত শাহ সামনে থেকে লড়েছেন। দেশের রাজধানীতে দিল্লিতে সংক্রমণ যখন শীর্ষে ছিল, তখন অমিত শাহ দিল্লির কোভিড পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়ালকেও সহায়তা করেছিলেন। তাঁরা একসঙ্গে কোভিড হাসপাতাল পরিদর্শনও করেন। রাজধানীর কোভিড পরিস্থিতিকে নিয়ন্ত্রণে আনতে রাজনৈতিক মতপার্থক্যকে দূরে সড়িয়ে রেখে অমিত শাহ এবং দিল্লি সরকার কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে একাধিক সভাও করেন।

উল্লেখ্য, রাম মন্দিরের ভূমি পুজোর আমন্ত্রিতদের তালিকায় অমিত শাহও রয়েছেন। অযোধ্যায় ৫ অগাস্ট ভূমি পুজোর অনুষ্ঠান হতে চলেছে। এদিকে অমিত শাহ করোনা আক্রান্ত হওয়ার প্রভাব সম্ভবত অযোধ্যা রাম মন্দির ভূমি পুজোর ওপর পড়বে। কারণ সাম্প্রতিক বৈঠকে শাহের প্রত্যক্ষ সংস্পর্শে আসা বেশ কয়েকজন মন্ত্রী এই অনুষ্ঠানের আমন্ত্রিতদের তালিকায় রয়েছেন।

বিজেপি নেতা রবিশঙ্কর প্রসাদ, রাম মাধব, তাজস্বী সূর্য স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর দ্রুত করোনা কামনা করে টুইট করেছেন। 

এদিকে আজ সকালেই করোনা আক্রান্ত উত্তরপ্রদেশের ক্যাবিনেটমন্ত্রী কমলরানি বরুণের (৬২) মৃত্যু হয়। ১৪ দিন লড়াইয়ের পর রবিবার সকালে লখনউয়ের এক হাসপাতালে মৃত্যু হয় তাঁর। কমলরানি কানপুরের ঘটমপুর বিধানসভা কেন্দ্র থেকে বিধায়ক নির্বাচিত হয়েছিলেন। যোগী সরকারের কারিগরি দপ্তর সামলানোর পাশাপাশি তিনি সমাজসেবার কাজও করতেন। পাশাপাশি তিনি দুবার লোকসভায় সাংসদ হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেছেন।

এদিকে দেশে বেড়েই চলেছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। দেশে ফের একদিনে আক্রান্তের সংখ্যা ৫০ হাজার ছাড়িয়ে গেল। গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৫৪,৭৩৫। একদিনে মৃত্যু হয়েছে ৮৫৩ জনের। সুস্থ হয়েছেন ৫১,২৫৫ জন। রবিবার কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের দেওয়া পরিসংখ্যান অনুযায়ী, দেশে এখনও পর্যন্ত করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৭,৫০,৭২৩। তার মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ১১,৪৫,৬২৯ জন। মৃত্যু হয়েছে ৩৭,৩৬৪ জনের। অর্থাৎ, দেশে করোনা অ্যাক্টিভ কেসের সংখ্যা ৫,৬৭,৭৩০।