নাবালিকা ছাত্রীকে নিয়ে পালানোর অভিযোগে গ্রেপ্তার গৃহ শিক্ষক

647

বর্ধমান: নাবালিকা ছাত্রীকে নিয়ে পালানোর অভিযোগে গ্রেপ্তার হলেন গৃহশিক্ষক। ধৃতের নাম তোতন প্রধান। পূর্ব বর্ধমানের মঙ্গলকোট থানার খেরুয়া গ্রামে তার বাড়ি। নাবালিকার পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্তে নেমে পুলিশ শনিবার রাতে মঙ্গলকোটের নিগন এলাকা থেকে গৃহশিক্ষককে গ্রেপ্তার করে। সেখান থেকে পুলিশ উদ্ধার করে ছাত্রীকে। সুনির্দিষ্ট ধরায় মামলা রুজু করে পুলিশ রবিবার নাবালিকা ও ধৃতকে কাটোয়া মহকুমা আদালতে পেশ করে। বিচারক ধৃত শিক্ষকের জামিন নাকচ করে জেল হেপাজতে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছে। পাশাপাশি বিচারক ছাত্রীকে সরকারি হোমে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন।

পুলিশ জানিয়েছে, মঙ্গলকোটের খেরুয়া গ্রামেই বসবাস নবম শ্রেনীর ওই ছাত্রীর পরিবারের। ছাত্রীকে তাঁদের বাড়িতে পড়াতে যেতেন এলাকারই যুবক তোতন প্রধান। অভিযোগ, কয়েকদিন আগে তোতন নাবালিকা ছাত্রীকে নিয়ে পালিয়ে যায়। তারপর থেকে মেয়ের খোঁজ না পেয়ে ছাত্রীর অবিভাবকরা মঙ্গলকোট থানার ওসি মিথুন ঘোষের দ্বারস্থ হন। নাবালিকার পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ তদন্তে নেমে জানতে পারে তোতন ছাত্রীকে নিয়ে নিগনে আত্মগোপন করেছে। শনিবার রাতে পুলিশ সেখানে হানাদিয়ে ছাত্রীকে উদ্ধার করার পাশাপাশি গৃহশিক্ষক তোতন প্রধানকে গ্রেপ্তার করে।

- Advertisement -