ভারতের বিরুদ্ধে চিনা আগ্রাসনের প্রতিবাদ হংকংয়ের রাস্তায়

1611

হংকং: ভারতের বিরুদ্ধে চিনা আগ্রাসনের প্রতিবাদ পৌঁছে গেল হংকংয়ের রাস্তায়। বৃহস্পতিবার ছিল চিনের জাতীয় দিবস। বন্দি প্রত্যর্পণ আইন নিয়ে এক বছরের বেশি সময় ধরে হংকংয়ের বাসিন্দারা চিনের বিরুদ্ধে আন্দোলন চালাচ্ছেন। পুলিশের চরম দমন পীড়ন সত্ত্বেও আন্দোলন বন্ধ করা সম্ভব হয়নি। চিনের জাতীয় দিবসে ফের বিলের প্রতিবাদে মিছিল বের করেন আন্দোলনকারীরা। সেখানে এক আন্দোলনকারী ভারতের পতাকা নিয়ে হাঁটছিলেন। কেন তিনি ভারতের পতাকা নিয়ে হাঁটছেন জিজ্ঞাসা করায় তিনি বলেন, ‘ভারত চিনের সঙ্গে লড়াই করছে। তাই ভারত আমার বন্ধু।’ ওই আন্দোলনকারীর বেশকিছু ছবি টুইটারে প্রকাশ করেছেন আলোকচিত্রী ও সাংবাদিক লরেল কোর। তিনি জানান, ওই আন্দোলনকারী ‘ভারতের পাশে দাঁড়াও’ বলে স্লোগান দিচ্ছিলেন। অন্য আন্দোলনকারীরা তাঁকে হাততালি দিয়ে সমর্থন জানান।

ভারতের বিরুদ্ধে চিনা আগ্রাসনের প্রতিবাদ হংকংয়ের রাস্তায়| Uttarbanga Sambad | Latest Bengali News | বাংলা সংবাদ, বাংলা খবর | Live Breaking News North Bengal | COVID-19 Latest Report From Northbengal West Bengal India

- Advertisement -

অন্যদিকে, অরুণাচল প্রদেশকে ভারতেরই অংশ বলে জানিয়ে দিল আমেরিকা। চিনের নাম না করে পরিষ্কার জানিয়ে দেওয়া হয়, অরুণাচল প্রদেশকে যারা নিজেদের সীমানার মধ্যে বলে দাবি করে তারা ভুল করে। কারণ, গত ৬ দশক ধরে অরুণাচল প্রদেশ ভারতেরই অংশ। গতকাল হোয়াইট হাউসে সাংবাদিক বৈঠকে আমেরিকার স্বরাষ্ট্র দপ্তরের এক উচ্চপদস্থ আধিকারিককে চিনের আচরণ ও ভারতের সঙ্গে বিবাদ প্রসঙ্গে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, ‘আমরা জানি ওই এলাকার সীমান্তে কেউ কেউ অনুপ্রবেশের চেষ্টা করছে। কিন্তু, গত ৬ দশক ধরে অরুণাচল প্রদেশকে ভারতের অংশ বলেই স্বীকৃতি দিয়ে এসেছে আমেরিকা।’ পাশাপাশি তিনি বলেন, ‘প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখায় কোনওরকম বিকৃতির চেষ্টা হলে আমরা তার তীব্র প্রতিবাদ জানাব। সীমান্তের যে জায়গাগুলি নিয়ে বিবাদের সূচনা হচ্ছে তা আলোচনার মাধ্যমে মীমাংসা করার জন্য দু’দেশকে পরামর্শ দেব।’ কয়েকদিন আগে চিন দাবি করে, অরুণাচল প্রদেশকে ভারতের অংশ হিসেবে তারা কোনওদিন স্বীকৃতি দেয়নি।