নাবালিকা পাচারে অভিযুক্তর বাড়ি সিল

264

আসানসোল: আসানসোলের কুলটি থানার নিয়ামতপুর ফাঁড়ির লছিপুর নিষিদ্ধপল্লিতে নাবালিকা উদ্ধারের ঘটনায় ফেরার মূল অভিযুক্ত গৌতম বিশ্বাসের বাড়ি রবিবার রাতে সিল করল পুলিশ। ঘটনায় গোটা এলাকায় শোরগোল পড়েছে। যদিও কোনও নোটিশ ছাড়াই এইভাবে গৌতম বিশ্বাসের বাড়ি সিল করায় পুলিশের উপর বেজায় ক্ষুব্ধ নিষিদ্ধপল্লির যৌনকর্মীরা। তাঁরা সরাসরি পুলিশের ভূমিকায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। এক যৌন কর্মী বলেন, ‘গৌতম বিশ্বাস কোনও অপরাধী নন। অথচ তাঁর সঙ্গে অপরাধীর মতো আচরণ করা হচ্ছে। গৌতমের নামে কোনও ওয়ারেন্ট নেই। তাও তাঁকে খুঁজে বেড়ানো হচ্ছে। তাঁকে মিথ্যা মামলায় ফাঁসানো হচ্ছে। কোনও মেয়ের কাছ থেকে কোনদিন একটা পয়সাও গৌতম নেয়নি। আমরা এখন খুব আতঙ্কের মধ্যে আছি।

গত ৪ আগস্ট মুর্শিদাবাদের একটি বেসরকারি সংস্থার নির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে রাজ্যের শিশু সুরক্ষা কমিশনের চেয়ারপার্সন অনন্যা চক্রবর্তী, জেলাশাসক বিভু গোয়েল এবং পুলিশ কমিশনার অজয় ঠাকুরের নেতৃত্বে ওই নিষিদ্ধ পল্লিতে তল্লাশি চালানো হয়। ২০ জন নবালিকা এবং একজন বাংলাদেশিকে উদ্ধার করা হয়।ঘটনায় ২৮ জনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। সম্প্রতি সেই ঘটনার তদন্ত শুরু করে সিআইডি। একইসঙ্গে ওই নাবালিকা উদ্ধারের পর পুলিশ তদন্তে নেমে এখানকার প্রায় ১৫০ টি দোকান ও ঘর সিল করে দিয়েছে।

- Advertisement -