সংসার সামলে ভাস্কর্য সৃষ্টিতে মেতে রয়েছেন গৃহবধূ ভাস্বতী

112

রায়গঞ্জ: ফেলে দেওয়া সামগ্রী দিয়ে হাতের কাজে তাক লাগিয়েছেন রায়গঞ্জের রমেন্দ্রপল্লীর বাসিন্দা গৃহবধূ ভাস্বতী মিত্র। গৃহস্থালীর কাজ সামলে ফেলে দেওয়া কাঁচের বোতল, বাল্ব, কাগজ বা কাপড় দিয়ে তিনি তৈরি করে চলেছেন একের পর ঘর সাজানোর সামগ্রী। সেইসঙ্গে রং ও তুলির টানে আঁকছেন ছবিও।

ভাস্বতীদেবী পরিবারের বড় বউ। সংসারের দায়িত্ব, চাপ, মেয়ের আবদার পূরণ করে শিল্পচর্চা করেন নিয়মিত। কোনও সাহায্য ছাড়াই ঘর সাজানোর জিনিস তৈরি করেন নিজের হাতে। অব্যবহৃত জিনিস ফেলে না দিয়ে সেগুলি সযত্নে রেখে দেন। কাঁচের বোতল দিয়ে সুন্দর ল্যাম্পসেড, ফুলদানি তৈরি করেছেন তিনি। কাপড়ের পাড় দিয়ে পাপোশ, বাতিল বাল্ব দিয়ে পুতুল এসবই তাঁর শিল্পকর্মের অংশ।

- Advertisement -

ভাস্বতীদেবীর কথায় ‘ছোট থেকেই এই ধরনের কাজ করার ইচ্ছে ছিল। আঁকা শিখলেও ভাস্কর্য তৈরিতে আগ্রহ তৈরি হয়েছে অনেক পরে। ইউটিউবের মাধ্যমেই কাজ শিখেছি।’ ভাস্বতীদেবীর স্বামী পার্থসারথী মিত্র প্রাথমিক শিক্ষক। তিনি বলেন, ‘আমার স্ত্রীর হাতের ভাস্কর্য ও আঁকা ছবিগুলো ভীষণ ভালো মানের। এটাকে আরও প্রসারিত করতে দরকার সরকারি অনুদান। তাহলে শিল্প উপযুক্ত মর্যাদা পাবে।’