গুনিনের ঝাড়ফুঁকে সময় নষ্ট, কুসংস্কারের বলি গৃহবধূ

295

পুরাতন মালদা: গুনিনের ঝাড়ফুঁকে সময় নষ্ট। সঠিক সময়ে চিকিৎসা না পেয়ে সাপের ছোবলে মৃত্যু হল এক গৃহবধূর। মৃত গৃহবধূর নাম বিজলী সর্দার(৩৪)। পুরাতন মালদা থানার ভাবুক গ্রাম পঞ্চায়েতের গোবিন্দপুর এলাকার ঘটনা।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, মৃত ওই গৃহবধূর স্বামী শ্রমিকের কাজে বেঙ্গালুরুতে রয়েছেন। ওই মহিলা তাঁর দুই ছেলেকে নিয়ে থাকতেন। সোমবার রাতে ঘরে ঘুমিয়ে ছিলেন ওই গৃহবধূ। সেইসময় একটি সাপ তাঁকে ছোবল দেয়। গৃহবধূর চিৎকার শুনে প্রতিবেশীরা সেখানে ছুটে আসেন। তাঁকে উদ্ধার করে গুনিনের কাছে নিয়ে যাওয়া হয়। শত চেষ্টার পরও ওই গুনিন তাঁর জ্ঞান ফেরাতে না পারলে ডাকা হয় আরও এক গুনিনকে। সেখানেও দীর্ঘক্ষণ ঝাড়ফুঁক চলে। পরিস্থিতির কোনও উন্নতি না হলে পরবর্তীতে পরিবারের লোকেরা ওই গৃহবধূকে মালদা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। পাশাপাশি চিকিৎসকরা জানান, নির্দিষ্ট সময়ে নিয়ে আসলে হয়তো বাঁচানো যেত তাঁকে। মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য মালদা মেডিকেল কলেজের মর্গে পাঠানোর ব্যবস্থা করা হয়েছে। এদিকে ঘটনার পর গাঢাকা দিয়েছে ওই গুনিন। মালদা বিজ্ঞান মঞ্চের সম্পাদক সুনীলচন্দ্র দাস জানান, হাসপাতালে না নিয়ে গুনিনের কাছে নিয়ে যাওয়া সঠিক পদক্ষেপ নয়। রাজ্য সরকার যেখানে বিভিন্ন স্বাস্থ্যকেন্দ্রে সবরকম প্রতিষেধক এবং চিকিৎসার ব্যবস্থা করে দিয়েছে, তারপরও কেন এমন ঘটনা ঘটল সে বিষয়ে প্রশাসনকে তদারকি করা দরকার। এক্ষেত্রে সচেতনতামূলক প্রচারের প্রয়োজন রয়েছে।

- Advertisement -