নিকাশির অভাবে জলবন্দি শতাধিক পরিবার, ক্ষোভ বাসিন্দাদের

123

সামসী: নিকাশির অভাবে প্রায় শতাধিক পরিবার জলবন্দি। রতুয়া ১ ব্লকের সামসী গ্রাম পঞ্চায়েতের মহেশপুর পশ্চিমপাড়ার এই সমস্যায় ভুগছেন বাসিন্দারা। এনিয়ে ক্ষোভে ফুঁসছেন প্রত্যেকেই। নিকাশি নালা নির্মাণ না হলে আন্দোলনের হুমকিও দিয়েছেন বাসিন্দারা।

বাসিন্দাদের অভিযোগ, পাকা নিকাশি নালা নির্মাণের জন্য সামসী পঞ্চায়েত প্রধানকে বহুবার বলেছি। এলাকার জেলা পরিষদ সদস্য হুমায়ুন কবির বাজনাকেও বলা হয়েছে। লিখিতভাবে জানানো হয়েছে রতুয়া-১ বিডিওকেও। কিন্তু আজও নিকাশি নালা নির্মাণের ব্যাপারে কোনও হেলদোল নেই প্রশাসনের। মহেশপুর পশ্চিমপাড়ার বাসিন্দা মহম্মদ আবুল হোসেন ক্ষোভের উগড়ে দিয়ে জানিয়েছেন, নিকাশি নালার কোনও ব্যবস্থা নেই। তাই সামান্য বৃষ্টি হলেই পুরো পশ্চিমপাড়ায় হাঁটু সমান জল জমে যায়। বৃজমা জল বাড়িতে ঢুকে পড়ে। ফলে আম, জাম, কাঁঠাল, লিচু সহ প্রচুর গাছ মারা যাচ্ছে। প্রায় একশো বিঘা তিন ফসলি জমি জলের তলায় ডুবে রয়েছে। জমিগুলি বর্তমানে কচুরিপানায় ভরাট। প্রচুর আর্থিক ক্ষয়ক্ষতি হচ্ছে। এক গৃহবধূ রেখা বিবি জানান, হাটু সমান জল পেরিয়ে হাট, বাজার, হাসপাতাল যেতে খুব সমস্যা হচ্ছে। তাই জলের উপর বাঁশের মাচা করে যাতায়াত করতে বাধ্য হচ্ছি। পানীয়জলের সংকট দেখা দিয়েছে। পিএইচইর পরিস্রুত পানীয়জল তো দূরের কথা নলকূপগুলিও জলে ডুবে রয়েছে।

- Advertisement -

সামসী পঞ্চায়েত প্রধান নবকুমার মণ্ডল জানান, আমি নতুন দায়িত্ব নিয়েছি। মহেশপুর পশ্চিমপাড়ার সমস্যার কথা শুনেছি। সরেজমিনে পরিদর্শনে গিয়ে পাকা নিকাশি নালা নির্মাণের জন্য স্কিম তৈরি করে বিডিও মারফত জেলা পরিষদে পাঠানো হবে। অর্থ বরাদ্দ মিললেই খুব শীঘ্রই কাজ চালু করা হবে।