চা শ্রমিকদের বোনাস সমস্যার নিষ্পত্তি হয়নি, দার্জিলিংয়ে আমরণ অনশনে বসলেন বিনয়

397

দার্জিলিং, ৬ অক্টোবরঃ চা বাগানের শ্রমিকদের বোনাস ইশ্যুতে পূর্ব ঘোষণা মতোই দার্জিলিংয়ে আমরণ অনশন শুরু করলেন গোর্খা জনমুক্তি মোর্চার সভাপতি বিনয় তামাং। রবিবার দুপুর দেড়টায় দার্জিলিং মোটর স্ট্যান্ডে তিনি অনশনে বসেছেন। প্রসঙ্গত, পাহাড়ের ৮৭টি চা বাগানে স্থায়ী অস্থায়ী মিলিয়ে প্রায় ৮০ হাজার শ্রমিক রয়েছেন। তাঁদের পুজো বোনাস নিয়ে এক মাস ধরে টানাপোড়েন চলছে। শ্রমিকপক্ষ ২০ শতাংশ হারে বোনাসের দাবিতে অনড় থাকলেও মালিকরা প্রথমে ৮.৩৩ এবং পরে ১০.৫ শতাংশ হারে বোনাস দিতে রাজি হন। এর বেশি হারে বোনাস দেওয়া সম্ভব নয় বলেও গত ৩০ সেপ্টেম্বরের বৈঠকে জানিয়ে দিয়েছেন। এর পরেই বিনয় তামাং ২০ শতাংশ হারে বোনাসের দাবিকে সমর্থন জানিয়ে ৪ অক্টোবর পর্যন্ত মালিকপক্ষকে সময়সীমে বেঁধে দেন। সেই সময়ের মধ্যে বোনাস নিষ্পত্তি না হলে তিনি ৬ অক্টোবর থেকে আমরণ অনশনে বসার হুমকি দিয়েছিলেন। ওই সময়ের মধ্যে বোনাস নিষ্পত্তি হয়নি। কাজেই পূর্ব ঘোষণা মতো এদিন শহরে বিশাল মিছিল করে অনশন শুরু করেন বিনয়। অন্যদিনে, শ্রমিক সংগঠনগুলিও গত কয়েকদিন ধরেই দাবি আদায়ে রিলে অনশন চালিয়ে যাচ্ছেন।
বিনয় বলেন, পুজোর মরশুম চলছে। অথচ পাহাড়ের চা বাগান শ্রমিকরা ন্যায্য পাওনা থেকে বঞ্চিত। মালিকপক্ষ সারা বছর চা পাতা বিদেশের বাজারে বিক্রি করে কোটি কোটি টাকা আয় করছে, অথচ শ্রমিকরা ন্যায্য পাওনা থেকে বঞ্চিত হয়ে পুজোয় আনন্দ করার বদলে মন খারাপ করে বসে আছেন। এই সময় শ্রমিকদের পাশে দাঁড়ানো প্রয়োজন বলে মনে করেছি।
এদিন শ্রমিক সংগঠনগুলির রিলে অনশন মঞ্চে গিয়ে সকলের সঙ্গে মিলিত হন বিনয়।