মেলেনি বাইক কেনার টাকা, গৃহবধূকে পুড়িয়ে মারল স্বামী!

110

রায়গঞ্জ: বিয়ের আট মাসের মাথায় স্ত্রী’কে আগুনে পুড়িয়ে মারার অভিযোগ উঠল স্বামী সহ শ্বশুরবাড়ির লোকজনের বিরুদ্ধে। অভিযোগ, মোটা টাকা যৌতুক নেওয়ার পরেও মোটর বাইক কেনার টাকা দাবি করা হয় মৃতার শ্বশুরবাড়ির তরফে। দাবি মতো তা না মেলায় মারধর করে ওই গৃহবধূকে আগুনে পুড়ি মারা হয় বলে অভিযোগ তোলেন মৃতার পরিজনেরা। রায়গঞ্জ থানার বরুয়া গ্রাম পঞ্চায়েতের কাচিমুহা গ্রামের ঘটনাকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। ঘটনায় স্বামী সহ মোট চারজনের বিরুদ্ধে রায়গঞ্জ থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন মৃতার বাবা প্রদীপ চন্দ্র রায়। অভিযোগের প্রেক্ষিতে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে খবর, মৃতা রুমকি রায় করণদীঘির ফরিদপুরের বাসিন্দা। প্রায় আট মাস আগে কাচিমুহার বাসিন্দা বিজয় বর্মনের সঙ্গে তার বিয়ে হয়। পরিবারের দাবি বিয়ের সময় যৌতুক হিসেবে তিন লক্ষ টাকা ও আসবাব সামগ্রী দেওয়া হয়। এতকিছুর পরেও বাইক কেনার জন্য টাকা দাবি করে রুমকির শ্বশুরবাড়ির লোকেরা চাপ সৃষ্টি করতে শুরু করে। অভিযোগ, দাবি না মেটায় মারধর করা হয় রুমকিকে। একইসঙ্গে তাঁর গায়ে আগুন ধড়িয়ে দিয়ে সকলেই পালিয়ে যায়। অন্যদিকে, ওই গৃহবধূর চিৎকার শুনে প্রতিবেশী ছুটে যান সেখানে। দগ্ধ অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে নিয়ে যান। চিকৎসা শুরুর কিছু সময় বাদেই চিকিৎসকেরা তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

- Advertisement -

পুলিশ সুপার সুমিত কুমার বলেন, ‘একটি অভিযোগ দায়ের হয়েছে। পুলিশ অভিযুক্তদের খোঁজে তল্লাশি চালাচ্ছে।’