স্ত্রীকে মেরে আত্মঘাতী স্বামী, চাঞ্চল্য রায়গঞ্জে

171

বিশ্বজিৎ সরকার, রায়গঞ্জ: স্ত্রীর মাথা ফাটিয়ে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করল এক ব্যক্তি। ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে রায়গঞ্জ শহরের দেবীনগরের দেবপুরি এলাকায়। এদিন শোয়ার ঘরের দরজা আটকে গলায় গামছা জড়ানো অবস্থায় পেশায় অ্যাম্বুলেন্স চালক ওই ব্যক্তির মৃতদেহ উদ্ধার করে স্থানীয়রা। পরে রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, মৃতের নাম গৌতম মল্লিক(৩০)। রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের বেসরকারি অ্যাম্বুলেন্স চালক। পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে, এদিন দুপুরে মদ্যপ অবস্থায় স্ত্রী বেনু রানি মল্লিকে বাঁশ দিয়ে মাথা ফাটিয়ে শোওয়ার ঘরের দরজা বন্ধ করে দেয়। রক্তাক্ত অবস্থায় লুটিয়ে পড়ে তাঁর স্ত্রী। মৃতের একমাত্র ছেলে ও পাড়াপড়শিরা উদ্ধার করে রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে। মাকে হাসপাতালে ভর্তি করে বাড়িতে ফিরে দেখে শোওয়ার ঘরের দরজা বন্ধ। বারবার বাবাকে ডেকেও সাড়া মেলেনি।

- Advertisement -

এরপর পাড়া-প্রতিবেশীদের সাহায্যে দরজা ভেঙে দেখে ফ্যানের রেলিংয়ে গলায় গামছা দিয়ে ঝুলছে গৌতম। গামছার ফাঁস কেটে তড়িঘড়ি রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকেও মৃত বলে ঘোষণা করে। এদিন বিকেল চারটা নাগাদ মৃতদেহ ময়নাতদন্তের পর পরিবারের হাতে তুলে দেয় রায়গঞ্জ থানার পুলিশ। মৃতের দাদা ষষ্ঠী মল্লিক বলেন, ‘এদিন দুপুরে নেশাগ্রস্ত অবস্থায় আমার ভাই বাঁশ দিয়ে তাঁর স্ত্রীর মাথা ফাটিয়ে দেয়। তাকে নিয়েই ব্যস্ত ছিল সবাই। এই ফাঁকে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করে সে। অস্বাভাবিক মৃত্যুর মামলা রুজু করে তদন্ত করছে রায়গঞ্জ থানার পুলিশ।