অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীর গলায় ব্লেড চালিয়ে খুনের চেষ্টা স্বামীর

451

হলদিবাড়ি, ৩০ অক্টোবরঃ পাঁচ মাসের অন্তঃসত্ত্বা বধূকে গলায় ব্লেড চালিয়ে খুন করার চেষ্টার অভিযোগ উঠল স্বামীর বিরুদ্ধে। ঘটনাটিকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য  ছড়াল হলদিবাড়ি ব্লকের ফিরিঙ্গির ডাঙ্গা এলাকায়। গৃহবধূর নাম সান্ত্বনা বর্মন। বর্তমানে জলপাইগুড়ি সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছেন ওই বধূ। এই বিষয়ে হলদিবাড়ি থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করা হয়।এদিকে ঘটনার পর থেকে অভিযুক্ত স্বামী পলাতক।তাঁর খোঁজ চালাচ্ছে পুলিশ।
গৃহবধূর ভাই বিপ্লব বর্মন হলদিবাড়ি থানায় অভিযোগ করে বলেন, ‘দেড় বছর আগে আমার বোন সান্ত্বনা বর্মনের সঙ্গে দেওয়ানগঞ্জ গ্রাম পঞ্চায়েতের ফতেমামুদের নিবাসী জয়ন্ত রায়ের বিয়ে হয়। বিয়ের সাত মাস পর থেকেই নানান কারণে ছোট বোনের ওপর অত্যাচার শুরু করে শ্বশুর বাড়ির লোকজন। বাড়ির কালী পুজো উপলক্ষে বোন বাড়িতে আসে। মঙ্গলবার সান্তনা তাঁর স্বামীর সঙ্গে কালী পুজা দেখতে যায়। রাতে বাড়ি ফিরে আমাদের বাড়িতেই থাকে। ভোর রাতে হঠাৎই সান্ত্বনা বাঁচাও বাঁচাও করে চিৎকার করে ওঠে।পাশের ঘরেই শুয়ে ছিল মা। মা বোনের চিৎকার শুনে বোনের ঘরে গিয়ে দেখে বোনের গলা দিয়ে রক্ত ঝরছে।তাঁকে উদ্ধার করে প্রথমে হলদিবাড়ি হাসপাতালে নিয়ে যাই।সেখান থেকে জলপাইগুড়ি সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে রেফার করা হয়।বর্তমানে সেখানেই চিকিসাধীন। হলদিবাড়ি থানার আই সি দেবাশিস বসু জানান,অভিযোগ পেয়েছি। ঘটিনার তদন্ত শুরু হয়েছে।অভিযুক্তকে দ্রুত গ্রেফতার করা হবে।