প্রয়াত বাংলাদেশের মুক্তিযোদ্ধা চিত্তরঞ্জন দত্ত

789

ঢাকা: প্রয়াত হলেন বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের ৪ নম্বর সেক্টরের কমান্ডার তথা সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত মেজর জেনারেল চিত্তরঞ্জন দত্ত। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৯৩ বছর। মঙ্গলবার বাংলাদেশের সময় সকাল সাড়ে ৯টা নাগাদ যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক দীপঙ্কর ঘোষ। জানা গিয়েছে, এই সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ছিলেন চিত্তরঞ্জন দত্ত।

চিত্তরঞ্জনবাবু সি আর দত্ত নামে বেশি পরিচিত ছিলেন। মুক্তিযুদ্ধে ভূমিকার জন্য বীর উত্তম খেতাব লাভ করেছিলেন তিনি। ঐক্য পরিষদের তরফে একটি বিবৃতিতে জানানো হয়েছিল, গত ২০ অগাস্ট ফ্লোরিডার বাসভবনের বাথরুমে পড়ে যান সি আর দত্ত। সেই সময় তাঁর পা ভেঙে যায়। চিত্তরঞ্জনবাবুকে হাসপাতালে ভর্তি করা হলে সেখানে তাঁর শারীরিক অবস্থার দ্রুত অবনতি ঘটতে থাকে। সোমবার তিনি মারা যান বলে জানা গিয়েছে।

- Advertisement -

ভারতের শিলংয়ে জন্ম হলেও চিত্তরঞ্জনবাবুর পৈতৃক বাড়ি ছিল হবিগঞ্জের চুনারুঘাট উপজেলায়। ১৯৫১ সালে তিনি তৎকালীন পাকিস্তান সেনাবাহিনীতে যোগ দিয়েছিলেন। বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের সময় সিলেট অঞ্চল নিয়ে যে ৪ নম্বর সেক্টর গঠন করা হয়, সেই সেক্টরের কমান্ডার হিসাবে নিযুক্ত হন তিনি। যুদ্ধে কৃতিত্বপূর্ণ অবদানের জন্য তিনি বীর উত্তম খেতাব পান।

স্বাধীনতার পরে তিনি প্রথমে সেনাবাহিনীর রংপুরে ব্রিগেড কমান্ডার হিসাবে নিযুক্ত হন। পরে তাঁকে বাংলাদেশের সীমান্তরক্ষী বাহিনী গঠনের দায়িত্ব দেওয়া হয়। বাংলাদেশ রাইফেলস (বিডিআর) গঠনের পর তিনি ছিলেন বাহিনীর প্রথম মহাপরিচালক। ১৯৮৪ সালে তিনি অবসর গ্রহণ করার পর থেকে বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন।