বাংলায় ফের তৃণমূলই ক্ষমতায় আসছে, দাবি শতাব্দীর

194

প্রদীপ চট্টোপাধ্যায়, বর্ধমান: পশ্চিমবঙ্গে আট দফায় ভোট করানো নিয়ে এবার নির্বাচন কমিশনকে এক হাত নিলেন তৃণমূল সাংসদ শতাব্দী রায়। সোমবার পূর্ব বর্ধমানের গলসিতে রোড শো’য়ে অংশ নিয়ে সাংসদ তথা তৃণমূল কংগ্রেসের রাজ্য সহ সভাপতি শতাব্দী রায় বলেন, ‘পরিকল্পনা মাফিক রুল তৈরি করে পশ্চিমবঙ্গে আট দফায় ভোট করানো হচ্ছে। অথচ অন্য রাজ্যে আসন বেশি থাকলেও ভোট করানো হচ্ছে ১-২ দফায়।’ একই সঙ্গে তিনি বলেন, ’খেলা হবে স্লোগানটা হিট হয়েছে। এরপর ভোটের সময় ডার্বি এবং আইপিএলের খেলাটা হবে।’ শতাব্দীর দাবি, ’জনপ্লাবনই প্রমাণ করে দিচ্ছে বাংলায় ফের তৃণমূলই ক্ষমতায় আসছে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তৃতীয়বারের জন্য মুখ্যমন্ত্রী হতে চলেছেন।’ উল্লেখ্য, রাজ্যে আট দফায় ভোট করানো নিয়ে সম্প্রতি নির্বাচন কমিশনকে কাঠগড়ায় তুলে ছিলেন রাজ্যের মন্ত্রী তথা তৃণমূল নেতা সুব্রত মুখোপাধ্যায়। এবার সাংসদ শতাব্দী রায়ও একই পথে হাঁটলেন।

ভোটের ঢাকে কাঠি পড়ার পর এদিনই প্রথম পূর্ব বর্ধমান জেলার গলসিতে অনুষ্ঠিত হল তৃণমূলের রোড শো। রোড শো’তে আকর্ষণের কেন্দ্র বিন্দুতে ছিলেন অভিনেত্রী তথা সাংসদ শতাব্দী রায়। কালিমতিদেবী স্কুল মাঠ থেকে রোড শো শুরু হয়। প্রায় ৪ কিমি পথ পরিক্রমা করে গলসি হাইস্কুলের কাছে পৌঁছে তা শেষ হয়। খণ্ডঘোষ, রায়না, সাঁকো, ভুরি সহ বিভিন্ন এলাকার বহু তৃণমূল কর্মী ও সমর্থক রোড শো’তে অংশ নিয়েছিলেন। উপস্থিত ছিলেন পূর্ব বর্ধমান জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের চেয়ারম্যান মমতাজ সংঘমিতা, গলসির বিধায়ক অলোক মাঝি, খণ্ডঘোষের বিধায়ক নবীনচন্দ্র বাগ প্রমুখ।

- Advertisement -

এদিকে, নির্বাচন কমিশনের উদ্দেশ্যে তৃণমূল নেতা-নেত্রীদের এমন আক্রমণকে কটাক্ষ করেছেন বিজেপি নেতৃত্ব। জেলা বিজেপি নেতা জয়দীপ চট্টোপাধ্যায় বলেন, ‘এবারের বিধানসভা ভোটে তৃণমূলের যে ভরাডুবি হবে সেটা বুঝে গিয়েছেন দলের নেতা-নেত্রীরা। তাই নির্বাচন কমিশনের দিকেই তাঁরা আঙুল তোলা শুরু করেছেন। মুখে বিজেপি হারবে বলে তৃণমূল নেতা-নেত্রীরা যতই দাবি করুন না কেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের তৃতীয়বার মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার স্বপ্ন অধরাই থেকে যাবে।’